আম্পায়ারের ভুলেই কি কপাল পুড়ল বাংলাদেশের?

স্পোর্টস ডেস্ক :
দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শ্বাসরুদ্ধকর লড়াইয়ের পরও হেরে গেছে বাংলাদেশ। ইনিংসের একেবারে শেষ দিকে প্রতিটি মুহূর্তই ছিল রোমাঞ্চকর। টানটান উত্তেজনাকর স্নায়ু চাপের ম্যাচে জয় তুলে নিতে পারেনি বাংলাদেশ। অবশ্য এমন হারের পর আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে।

বাংলাদেশের ইনিংসের ১৬.২তম ওভারের ঘটনা। ওটনিয়েল বার্টমানের বলে ফ্লিক করতে চেয়েও পারেননি মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তার প্যাডে লেগে বল চলে যায় বাউন্ডারিতে। ওই মুহূর্তেই এলবির আবেদন তোলে দক্ষিণ আফ্রিকা। সঙ্গে সঙ্গে তাতে সাড়া দিয়ে আঙ্গুল তুলে দেন আম্পায়ার।

কিন্তু নিজের জায়গায় মাহমুদুল্লাহ ছিলেন স্পষ্ট। তাই নিয়ে নেন রিভিউ। টিভি রিপ্লেতে পাল্টে যায় সিদ্ধান্ত। ক্ষমা চেয়ে আম্পায়ারও সিদ্ধান্ত বদলে নেন! কিন্তু আম্পায়ারের ওই ভুল সিদ্ধান্তই শেষ পর্যন্ত কাল হয়ে দাঁড়িয়েছে বাংলাদেশের। কারণ সে সময় সিদ্ধান্ত বদলালেও লেগ বাই থেকে পাওয়া চারটি রান আর পায়নি বাংলাদেশ। নিয়ম অনুসারে, আউট দিলে ওই বল থেকে আসা রান ডেড হিসেবে ধরা হয়। কিন্তু সিদ্ধান্ত বদলে ওই আউটের সমীকরণ বদলালেও রানটা ডেডই ছিল। কম রানের ম্যাচে ওই চারটি রান হারিয়ে শেষ পর্যন্ত মাশুল দিতে হলো বাংলাদেশকে।

ম্যাচটিতে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ওই চার রানেই হেরে গেল বাংলাদেশ। নিয়ম অনুসারে প্রাপ্য ৪ রান পেলে নাসাউতে ম্যাচের ভাগ্য উল্টো হতে পারতো। আম্পায়ারের ওই এক সিদ্ধান্তে বিশ্বকাপে ২১তম ম্যাচে কপাল পুড়ল মাহমুদুল্লাহ রিয়াদদের।

বিশ্বকাপের ২১তম ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে স্কোরবোর্ডে ১১৩ রান তুলে দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাব দিতে নেমে নাসাউর মন্থর উইকেটের চ্যালেঞ্জের মুখে বাংলাদেশ থেমে যায় ১০৯ রানে।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

লজ্জায় সাকিবের অবসর নেওয়া উচিত, বললেন ভারতীয় ধারাভাষ্যকার

স্পোর্টস ডেস্ক :
এবারের বিশ্বকাপে বড্ড অচেনা সাকিব আল হাসান। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বল হাতেও নিজের সেরাটা দিতে পারছেন না বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। বিশেষ করে ব্যাট হাতে সাকিবের অফফর্ম বেশ ভোগাচ্ছে দলকে। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষেও নাটকীয় হারের ম্যাচে সাকিবের আউট ছিল বেশ দৃষ্টিকটু। তারকা এই ক্রিকেটারের এমন পারফরম্যান্সে ক্ষুব্ধ সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ও ধারাভাষ্যকার বীরেন্দ্র শেবাগ।

গতকাল সোমবার (১০ জুন) জনপ্রিয় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ক্রিকবাজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে শেবাগ বলেন, ‘আপনি (সাকিব) একজন এতো সিনিয়র খেলোয়াড়, আপনি অধিনায়কও ছিলেন এতদিন, আর এরপরও আপনার এতো বাজে গেমসেন্স! আপনার নিজেরই তো লজ্জা হওয়া উচিত। অনেক হয়েছে, টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট থেকে অবসর নেওয়া উচিত।’

নিজের উদাহরণ টেনে শেবাগ বলেন, ‘আমি তো দ্বিতীয় বা তৃতীয় বিশ্বকাপে…..যখন আমরা শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপ খেলছিলাম, তখন আমি অনুধাবন করলাম, ডেল স্টেইন, মরনে মরকেল, আফগানিস্তানের একজন বাঁহাতি ফাস্ট বোলার ছিল, তাদেরকে মারতে পারছি না, তখনই তো আমি সিলেক্টরদের বলে দিয়েছিলাম, আমাকে যেন আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে বিবেচনা না করা হয়। আমি শুধু ওয়ানডে ও টেস্ট খেলতে চাই।’

অবশ্য, সাকিবের শেষটা এখনই দেখছেন শেবাগ। তিনি আরও বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর সাকিব এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড উভয়পক্ষকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে। হয় সাকিব নিজ থেকে সরে যাবে অথবা বোর্ড তাকে বাধ্য করবে। আর আউট নিয়ে বলতে চাই, তার বোঝা উচিত সে কোন শট খেলছে। সে অন্য হার্ড হিটারদের মতো খেলতে চাইলে তো হবে না।’

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচেও কী বৃষ্টি হানা দেবে?

ডেস্ক রিপোর্ট :
শ্রীলঙ্কাকে হারানোর পর আরেক কঠিন পরীক্ষায় বাংলাদেশ। যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে আজ টাইগাররা দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হবে।

এই মাঠে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে এ পর্যন্ত পাঁচটি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এখানেই গতকাল রবিবার দিবাগত রাতে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচে বৃষ্টি হানা দেয়। ফলে ৫০ মিনিট দেরিতে শুরু হয় খেলা। তবে ম্যাচের কোনো ওভার কাটা যায়নি।

আজ বাংলাদেশ-দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচেও কী নামতে পারে বৃষ্টি?  এই ম্যাচে বৃষ্টিপাতের আশঙ্কা কতোটুকু?

আবহাওয়ার পূর্বাভাসবিষয়ক মার্কিন প্রতিষ্ঠান ‘আকুওয়েদার’ জানিয়েছে, টাইগারদের আজকের ম্যাচের সময় নিউইয়র্কে আবহাওয়া রৌদ্রোজ্জ্বল থাকবে। সেই সাথে তাপমাত্রা থাকবে ২৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ২৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে। বজ্র-বৃষ্টির সম্ভাবনা প্রায় শূন্য শতাংশ।

নিউইয়র্কের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, বৃষ্টির সম্ভাবনা ৪ শতাংশ। স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় শুরু হবে ম্যাচ। বাতাসে প্রায় ৫০ শতাংশ আদ্রর্তা থাকবে এবং ধারণা করা হচ্ছে মাঠে প্রতি ঘণ্টায় ১১ কিলোমিটার বেগে বাতাস বইতে পারে।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে কেমন হবে টাইগার একাদশ?

স্পোর্টস ডেস্ক :
নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আজ রাত সাড়ে ৮টায় দক্ষিণ আফ্রিকার মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ। লঙ্কানদের হারানোর পর সুপার এইটের দৌড়ে এগিয়ে যেতে এ ম্যাচেও জয় চায় টাইগাররা।

শক্তিশালী প্রোটিয়াদের বিপক্ষে বাংলাদেশের একাদশ কেমন হতে পারে তা নিয়ে চলছে আলোচনা। বিশেষ করে একাদশে শরিফুল থাকবেন কিনা তা নিয়ে কৌতূহল রয়েছে ক্রিকেটপ্রেমীদের। ম্যাচের আগের দিন অনুশীলনে বাঁহাতি এই পেসারকে বোলিং করতে দেখা গেছে। বোলিংয়ে তাকে বেশ স্বাচ্ছন্দেই দেখা গেছে।

বাংলাদেশের সম্ভাব্য একাদশ
তানজিদ হাসান তামিম, সৌম্য সরকার, লিটন কুমার দাস (উইকেটকিপার), নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), তাওহিদ হৃদয়, সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, রিশাদ হোসেন, তানজিম হাসান সাকিব, তাসকিন আহমেদ ও মুস্তাফিজুর রহমান।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

দক্ষিণ আফ্রিকা ম্যাচের আগে বড় সুখবর পেল বাংলাদেশ

স্পোর্টস ডেস্ক :
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে নাটকীয় জয়ের পর এবার বাংলাদেশের সামনে দক্ষিণ আফ্রিকা চ্যালেঞ্জ। সুপার এইটের পথে আরও এক ধাপ এগিয়ে যেতে এই ম্যাচে জয় পাওয়ার গুরুত্বপূর্ণ শান্তদের জন্য। নিউ ইয়র্কের নাসাউ ক্রিকেট গ্রাউন্ডে মাঠে নামার আগে বড় সুখবর পেল বাংলাদেশ

ভারতের বিপক্ষে প্রস্তুতি ম্যাচে চোট পেয়েছিলেন শরিফুল ইসলাম। এ কারণে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের হয়ে খেলা হয়নি তার। সাউথ আফ্রিকার বিপক্ষে ম্যাচের আগে শরিফুলের ফিটনেস নিয়ে সুখবর দিলেন চান্ডিকা হাথুরুসিংহে। আগের থেকে ভালো অবস্থানে আছেন এই পেসার। গতকাল রোববার (৯ জুন) চোট কাটিয়ে প্রথমবারের মতো অনুশীলন করতে দেখা যায় তাকে।

তবে, দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তিনি খেলবেন কি না, সেই বিষয়টি এখনও নিশ্চিত নয়। হাতে ছয়টি সেলাই করা শরিফুল যদিও গতকাল স্টিচ ছাড়া বোলিংও করেছেন। তার অনুশীলন পর্যবেক্ষণ করেই পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে টিম ম্যানেজমেন্ট। এই ম্যাচের উইকেট দেখেই একাদশ ঠিক করবে টিম ম্যানেজমেন্ট।

ম্যাচের আগে হাথুরুসিংহে বলেন, ‘শরিফুল আজকে বোলিং করেছে। আজকে সে অনেকটাই ফিট। যদিও আরও ফিট হওয়া বাকি আছে। তার বোলিংও ভালো। সে কোনও স্টিচ ছাড়া আজ বোলিং করছে। আমি আশা করছি আজকের পর থেকে সে সিলেকশানের জন্য এভেইলএভেল হবে।’

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বল হাতে দারুণ ছন্দে ছিলেন তাসকিন-মুস্তাফিজরা। যদি শেষমেশ শরিফুলকে দক্ষিণ্ আফ্রিকার বিপক্ষে খেলানো হয়, তবে একাদশ থেকে বাদ পড়তে পারেন আরেক পেসার তানজিম হাসান সাকিব। তিনিও গত ম্যাচে সামর্থ্যের প্রমাণ দিয়েছেন।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

ধোনির সংস্পর্শেই বদলে গেলেন মুস্তাফিজ, বলছেন তামিম

স্পোর্টস ডেস্ক :
একটি জয় খুব প্রয়োজন ছিল বাংলাদেশের ক্রিকেটের জন্য। গত এক মাসে টি-টোয়েন্টিতে যাচ্ছেতাই অবস্থা আর সমালোচনায় জেরবার ছিলেন ক্রিকেটাররা। অবশেষে এলো কাঙ্খিত জয়ের দেখা। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে শুভসূচনা করেছে বাংলাদেশ। ম্যাচে বল হাতে অবদান রাখেন মুস্তাফিজুর রহমান।

চার ওভারে মাত্র ১৭ রান দিয়ে তিন উইকেট নেওয়া মুস্তাফিজ কাজে লাগিয়েছেন আইপিএলের অভিজ্ঞতা, এমনটিই মনে করেন তাামিম ইকবাল। বাংলাদেশের ম্যাচ শেষে আজ শনিবার (৮ জুন) স্টার স্পোর্টসে কথা বলার সময় জানান তামিম। তার মতে, ধোনির সঙ্গে আইপিএলে খেলার পর বদল এসেছে মুস্তাফিজের বোলিংয়ে।

স্টার স্পোর্টসে তামিম বলেন, ‘মুস্তাফিজকে দেখে ভালো লেগেছে। তার পারফরম্যান্স দারুণ ছিল। কিছুদিন আগেও সে ছন্দে ছিল না। দল থেকেও বাদ পড়েছিল। তবে, আইপিএলে ধোনির সঙ্গে খেলার পর তার মধ্যে পরিবর্তন এসেছে। মুস্তাফিজ ভালো খেললে বাংলাদেশেরও ভালো করার সম্ভাবনা তৈরি হয়।’

এছাড়া তামিম আরও যোগ করেন, ‘বাংলাদেশের জন্য জয়টা খুব দরকার ছিল। যুক্তরাষ্ট্রের কাছে সিরিজ হেরেছে। মানসিকভাবে ক্রিকেটাররা ভেঙে পড়েছিল। এই জয় তাদের আত্মবিশ্বাস বাড়াবে।’

শ্রীলঙ্কাকে হারানোর পর বাংলাদেশের পরবর্তী মিশন দক্ষিণ আফ্রিকা। একদিন বিরতি দিয়ে আগামী ১০ জুন প্রোটিয়াদের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

বিশ্বকাপে উড়ন্ত শুরু বাংলাদেশের

স্পোর্টস ডেস্ক :
বল হাতে জয়ের গল্পটা আগেই লিখে ফেলেন রিশাদ হোসেনরা। দাপুটে বোলিংয়ে শ্রীলঙ্কাকে আটকে দেন মাত্র ১২৪ রানে। এই ছোট রান তাড়ায়ও হতাশায় ডুবতে বসেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা হতে দেননি ক্রিজে থাকা মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। আরেকবার ডুবতে বসা বাংলাদেশের ত্রাতা হয়ে উঠলেন তিনি। তার বুড়ো হাড়ের ভেলকিতে শ্রীলঙ্কাকে কাঁদিয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে উড়ন্ত শুরু করেছে বাংলাদেশ।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে দুই উইকেটে জিতেছে বাংলাদেশ। এই জয়ে সাম্প্রতিক অফফর্মের হতাশাও খানিকটা কমল বাংলাদেশের। টানা ব্যর্থতার বৃত্তে আটকে থাকা লিটনরা বিশ্বকাপে পেলেন স্বস্তির সুবাতাস।

অন্যদিকে এই হারে বিশ্বকাপ থেকে বিদায়ের ঘণ্টা অনেকটাই বেজে গেল শ্রীলঙ্কার। টানা দুই হারে সুপার ফোরের সমীকরণটা কঠিন হয়ে উঠল লঙ্কানদের।

আজ শনিবার (৮ জুন) বিশ্বকাপের ১৫ তম ম্যাচে আগে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে স্কোরবোর্ডে ১২৪ রানের বেশি তুলতে পারেনি শ্রীলঙ্কা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৭ রানের ইনিংস খেলতে পেরেছেন পাথুম নিশানকা।

জবাব দিতে নেমে ৬ বল হাতে রেখে ১২৫ রান করে জয়ের নাগাল পেয়ে যায় বাংলাদেশ। যদিও, ব্যাটিংয়ের শুরুতে বরাবরের মতো ব্যর্থতা ভর করে বাংলাদেশের ওপর। শুরুতেই বিদায় নেন সৌম্য সরকার। ধানাঞ্জয়া ডি সিলভার সাদামাটা বলে বাজে শট খেলে শূন্যতে বিদায় নেন বাঁহাতি ওপেনার।

এরপর হতাশ করেন তানজিদ তামিম। নুয়ান থুশারার ডেলিভারিতে ড্রাইভ করতে গিয়ে বোল্ড হন তানজিদ (৩)। চারে নেমে টিকলেন না অধিনায়ক শান্তও। ১৩ বল মোকাবিলা করে অধিনায়কের ইনিংস থামল ৭ রানে। ২৮ রানে তিন উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে যায় বাংলাদেশ। তখন উইকেটে থেকে আশার পালে সাহস যোগান তাওহিদ ও লিটন দাস। এই জুটিতে জয়ের পথটা সহজ করে ফেলে বাংলাদেশ। মাঝপথে ২০ বলে ৪০ রান করে তাওহিদ ফিরলে লিটনও বিদায় নেন। ৩৬ রান করে হাসারাঙ্গার এলবির ফাঁদে পড়েন ডানহাতি ব্যাটার। দুই সেট ব্যাটার ফেরার পর হারতেই বসেছিল বাংলাদেশ। কিন্তু ক্রিজে থেকে বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত করেই মাঠ ছাড়েন মাহমুদউল্লাহ। জয়ের পথে মাহমুদউল্লাহ করেন ১৬ রান।

এর আগে ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে টস জিতে যথারীতি বোলিং বেছে নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। নতুন বলে বাংলাদেশের ইনিংস শুরুটা করেছেন তানজিম হাসান সাকিব। এক বাউন্ডারি হজম করলেও প্রথম ওভারে ৫ রানের বেশি দেননি তিনি। সাকিব আল হাসান দ্বিতীয় ওভারে এসেই রান দেদারসে। তৃতীয় ওভারে বোলিংয়ে এসে বাংলাদেশকে প্রথম ব্রেক থ্রু এনে দেন তাসকিন আহমেদ। চোট কাটিয়ে ফেরা তাসকিনের ওভারের প্রথম দুই বলে বাউন্ডারি হাঁকান কুশল মেন্ডিস। তৃতীয় বলেই বোল্ড। ডানহাতি পেসারের ব্যাক অব লেংথ ডেলিভারি স্টাম্পে টেনে নিয়ে বোল্ড হন মেন্ডিস (১০)।

পঞ্চম ওভারে আক্রমণে আসেন মুস্তাফিজুর রহমান। নিজের প্রথম বলেই পেয়ে যান সাফল্য। বাঁহাতি পেসারের অফ স্টাম্পের বাইরের ডেলিভারি উড়িয়ে মারার চেষ্টায় মিড অফে ক্যাচ হয়ে ফেরেন কামিন্দু মেন্ডিস।

দুই উইকেট হারানোর পরও পাওয়ার প্লেতে ৫৩ রান তোলে শ্রীলঙ্কা। তার মধ্যে উইকেটে থিতু হয়ে ভয় জাগান পাথুম নিশানকা। ভয়ংকর হয়ে ওঠা এই নিশানকার প্রতিরোধ ভাঙেন মুস্তাফিজ। কাটার মাস্টারের ফুল লেংথ ডেললিভারিতে কাভারের শান্তর ক্যাচ হয়ে ফেরেন নিশানকা। ফেরার আগে ২৮ বলে সাত চার ও এক ছক্কায় ৪৭ রান করেন লঙ্কান ওপেনার।

তিন টপ অর্ডারের বিদায়ের পর চতুর্থ উইকেটে জুটি গড়ার আভাস দেন ডি সিলভা ও চারিথ আসালাঙ্কা। নবম ওভারে এসে জোড়া উইকেট নিয়ে ৩০ রানের এই জুটি ভাঙেন রিশাদ। প্রথমে তুলে নেন ১৯ রান করা আসালাঙ্কাকে। এরপর ছয়ে নামা হাসারাঙ্গাকে রানের খাতাই খুলতে দেননি রিশাদ।

নিজের শেষ ওভারে এসে ডি সিলভাকেও বিদায় করেন রিশাদ। ১৯ রান করা সিলভা বাংলাদেশি লেগ স্পিনারের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন। দ্রুত উইকেট হারানোর মিছিলে বড় পুঁজি গড়তে পারেনি শ্রীলঙ্কা। একের পর এক উইকেট হারিয়ে অল্পতে থামে হাসারাঙ্গার দল।

বাংলাদেশের হয়ে বল হাতে ২২ রান দিয়ে তিন উইকেট নেন রিশাদ। ১৭ রান খরচায় মুস্তাফিজুর রহমান নেন তিনটি। ২৫ রানে দুটি নিয়েছেন তাসকিন আহমেদ।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা: ২০ ওভারে ১২৪/৯ (নিশানকা ৪৭, কুসাল ১০, কামিন্দু ৪, ধানাঞ্জয়া ২১, আসালাঙ্কা ১৯, হাসারাঙ্গা ০, ম্যাথিউস ১৬, শানাকা ৩, থিকশানা ০, পাথিরানা ০*, থুশারা ০*; তানজিম ৪-০-২৪-১, সাকিব ৩-০-৩০-০, তাসকিন ৪-০-২৫-২, মুস্তাফিজ ৪-০-১৭-৩, রিশাদ ৪-০-২২-৩, মাহমুদউল্লাহ ১-০-৪-০)।

বাংলাদেশ :  ১৯ ওভারে ১২৫/৮(সৌম্য ০, তানজিদ ৩, শান্ত ৭, তাওহিদ ৪০, লিটন ৩৬, সাকিব ৮, মাহমুদউল্লাহ ১৬, রিশাদ ১, তাসকিন ০, সাকিব ১; ডি সিলভা ২-০-১১-১, থুশারা, থিকসানা ৪-০-২৫-০, হাসারাঙ্গা ৪-০-৩২-২, পাথিরানা ২-০-২৭-১)।

ফল : দুই উইকেটে জয়ী বাংলাদেশ।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

সাকিব বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য বিশাল উপহার

স্পোর্টস ডেস্ক :

‘সাকিব আল হাসান আর কিংবদন্তি শব্দ দুটি সমার্থক’, তাসকিন আহমেদ।

‘সাকিব আল হাসান একজন কিংবদন্তি। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত চমৎকার ছন্দ ধরে রেখেছেন’, তানজিম সাকিব।

সাকিবকে নিয়ে বাংলাদেশের দুই পেসারের বন্দনা বাক্য। এ দুজন ভুল বলেননি। গত দেড় দশকে বাংলার ক্রিকেটকে যেভাবে আগলে রেখেছেন, সামর্থ্যের প্রায় সবটা দিয়ে উজাড় করে দিয়েছেন, তাতে তাকে কিংবদন্তি বলাটা ভুল হবে না। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখন অবধি যিনি নিজেকে নিয়ে গেছেন আকাশসম উচ্চতায়। রোহিত শর্মার সঙ্গে একটা জায়গায় মিল আছে সাকিবের। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আগামীকাল শনিবার (৮ জুন) ভোরে মাঠে নামলেই ইতিহাস গড়বেন সাকিব। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রোহিত ও সাকিবই কেবল খেলছেন সব আসর।

যুক্তরাষ্ট্রে শুরু হয়েছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের নবম আসর। আগের আট আসরের সবগুলো খেলেছিলেন সাকিব। একমাত্র বাংলাদেশি হিসেবে নতুন ইতিহাসের দ্বারপ্রান্তে বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। আরও একটি অর্জন হাতছানি দিয়ে ডাকছে তাকে।

ক্রিকেটের ক্ষুদ্র সংস্করণের বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি উইকেট সাকিবের। ৩৬ ম্যাচে ৪৭ উইকেট নিয়ে অপেক্ষা এখন অর্ধশতকের। সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় বর্তমানের কেউ নেই সাকিবের ধারেকাছে। দ্বিতীয় সেরা উইকেট পাকিস্তানের সাবেক তারকা শহীদ আফ্রিদির। তার উইকেট ৩৯টি। তিনে থাকা লাসিথ মালিঙ্গার উইকেট ৩৮। এ ছাড়া, সেরা পাঁচে থাকা বাকি তিনজন (পঞ্চম স্থানে যৌথভাবে দুজন)  সাঈদ আজমল, অজন্তা মেন্ডিস ও উমর গুল—কেউই এখন আর খেলছেন না।

এমন ম্যাচের আগে নিজেদের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে সাকিবকে নিয়ে একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে আইসিসি। যেখানে ওপরে বলা তাসকিন ও তানজিমের অভিমত ফুটে উঠেছে। সেই পোস্টের শিরোনামে আইসিসি লিখেছে, ’সাকিব বাংলার ক্রিকেটের জন্য বিশাল এক উপহার!’ ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বোধকরি বাড়িয়ে বলেননি কিছু।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

লঙ্কা অভিযান দিয়ে কাল শুরু বাংলাদেশের বিশ্বকাপ

ডেস্ক রিপোর্ট :
মার্কিন মুলুকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। সেখানকার বিখ্যাত লেখক উইলিয়াম ফকনারের একটা চমৎকার উক্তি টেনে নিলে মন্দ হয় না। কারণ, বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার লড়াই সামনে এলে এই উক্তিটি এখন প্রাসঙ্গিক। ফকনার বলেছিলেন— ‘অতীত কখনও মরে না। এটা এমনকি অতীতই নয়!’

বাঘ ও সিংহের সম্মুখ সমরে অবধারিতভাবেই উঠে আসে অতীত। গত কয়েক বছরে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার ম্যাচগুলো স্রেফ খেলাতে সীমাবদ্ধ থাকেনি। নাগিন ড্যান্স থেকে টাইমড আউট—দুটি ঘটনায় বেড়েছে উত্তাপ।

উত্তাপ ও উত্তেজনা নিয়েই যুক্তরাষ্ট্রে মুখোমুখি হতে চলেছে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা। ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে আগামীকাল শনিবার (৮ জুন) পরস্পর মোকাবিলা করবে দল দুটি। লড়াই শুরু বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৬টায়।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ হলেও শ্রীলঙ্কার দ্বিতীয় ম্যাচ। তাদের জন্য ম্যাচটি বিশ্বকাপে টিকে থাকারও। দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে প্রথম ম্যাচ হারায় চাপে আছে দলটি। বাংলাদেশ নির্ভার, তা বলা যাবে না। সাম্প্রতিক অফফর্ম, আরও ছোট করে আনলে গত একমাসে টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে বাংলাদেশের চেয়ে গড়পড়তা খুব কম দলই বোধহয় খেলেছে।

ক্রিকেট গোল বলের খেলা। বলা হয়ে থাকে, চিরস্থায়ী অনিশ্চয়তার খেলা। সর্বকালের অন্যতম সেরা হলিউড মুভি ‘দ্য গডফাদার’ এ বিখ্যাত অভিনেতা আল পাচিনোকে বলা তার পারিবারিক বন্ধুর একটি সংলাপ— ‘আমরা তোমাকে নিয়ে গর্ব করতাম। তুমি আমাদের হিরো ছিলে।’

অতীত উঠে আসে এখানে! বাংলাদেশ দলের ক্রিকেটারদের বেলায়ও কি একই সংলাপ প্রযোজ্য নয়? তারা তো ভক্তের কাছে হিরোই। কিন্তু, হিরোরা ইদানিং মান রাখতে পারছে কই? শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশের ম্যাচটি তাই ভীষণ জরুরি। বিশ্বকাপে একটা দারুণ শুরুর জন্য, সমালোচনাকে পেছনে ফেলার জন্য। অনিশ্চিয়তার খেলা ক্রিকেটে যে কোনো সময় যে কোনো কিছু ঘটতে পারে।

মঞ্চ যখন বিশ্বকাপের, বাংলাদেশ অনুপ্রেরণা নিতেই পারে। সর্বশেষ ওয়ানডে বিশ্বকাপে লঙ্কানদের বিপক্ষে শেষ হাসি হেসেছিল লাল-সবুজের প্রতিনিধিরাই। ফরম্যাট বদলালেও মঞ্চ তো বিশ্বকাপই। দুদলের মুখোমুখি লড়াই অবশ্য কথা বলবে লঙ্কান লায়নদের হয়ে। মুখোমুখি দেখায় ১৬টি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে শ্রীলঙ্কা জিতেছে ১১টি, বাংলাদেশ পাঁচটি। চলতি বছরে শেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজেও ২-১ ব্যবধানে জিতেছিল লঙ্কানরা।

ডালাসের উইকেট ব্যাটিং সহায়ক হবে বলেই মনে করা হচ্ছে। এই মাঠে যুক্তরাষ্ট্র-কানাডা ম্যাচে দুই ইনিংসেই প্রায় ২০০ ছুঁই ছুঁই রান হয়েছে। ক্রমাগত ব্যর্থ বাংলার ব্যাটারদের জ্বলে ওঠার বিকল্প নেই। ক্রিকেট মাঠে শ্রীলঙ্কার সঙ্গে ম্যাচ মানে অহংয়ের লড়াইয়ে পরিণত হওয়ার ব্যাপারটি যদি জাগাতে পারে ব্যাটারদের ঘুম! বোলিংয়ে সাকিব আল হাসান দাঁড়িয়ে ৫০ উইকেট নেওয়ার দ্বারপ্রান্তে। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি উইকেট তারই।

ম্যাচের আগে বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত বলেন, ‘আমি ব্যক্তিগতভাবে ম্যাচটিতে ভিন্নতা দেখছি না। অবশ্যই, এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। আমরা সবাই সেটি জানি। বেশি চিন্তা করার চেয়ে জরুরি মাঠে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করা।’

শ্রীলঙ্কার ব্যাটিং কোচ থিলান কান্দাম্বি বলেন, ‘আমার মনে হয় সম্প্রতি বাংলাদেশের বিপক্ষে আমরা ভালো ক্রিকেট খেলেছি। আমরা ম্যাচ নিয়ে আত্মবিশ্বাসী। ম্যাচে একটু মোমেন্টাম পেলে তা কাজে লাগানোর বিকল্প নেই।’

সাকিবও একাধিকবার একই কথা বলেছেন। টি-টোয়েন্টি মোমেন্টামের খেলা। একটি মুহূর্ত, বদলে দিতে পারে গতিপথ। সেই পথ ধরে জয়ের বন্দরে পৌঁছানোটাই মূল চ্যালেঞ্জ।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ স্কোয়াড :

নাজমুল হোসেন শান্ত (অধিনায়ক), তাসকিন আহমেদ, লিটন দাস, সৌম্য সরকার, তানজিদ হাসান তামিম, সাকিব আল হাসান, তাওহিদ হৃদয়, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, জাকের আলি অনিক, রিশাদ হোসেন, তানভীর ইসলাম, শেখ মেহেদি হাসান, মুস্তাফিজুর রহমান, শরিফুল ইসলাম, তানজিম হাসান সাকিব।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

রসিকতা করে সাকিব বললেন, ‘আমরা তো মায়ের দোয়া টিম’

ডেস্ক রিপোর্ট :
শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে আগামী ৮ জুন শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ মিশন। সেই ম্যাচের আগে ব্যাটে-বলে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছেন স্কোয়াডে থাকা ক্রিকেটাররা। গতকাল বুধবার (৫ জুন) অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে রসিকতায় মাতলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। এদিন অনুশীলনে বেশ চনমনে মনে হয়েছে সাকিবকে।

যুক্তরাষ্ট্রের মাটিতে সাকিবকে পেয়ে সেলফির আবদার করতে ভুল করছেন না ভক্তরা। সেই তালিকায় আছেন গণমাধ্যমকর্মীরা। প্রিয় তারকার সঙ্গে মুহূর্তটা ফ্রেমবন্দী করে রাখলেন বিশ্বকাপ কাভার করতে যাওয়া সাংবাদিকরা।

সেসময় টুর্নামেন্ট নিয়ে শুভকামনা জানাতেই সাকিবের রসিকতা, ‘আমরা তো মায়ের দোয়া টিম হয়ে গেছি! দোয়া চাওয়া বন্ধ করে দিয়েছি!’ সাকিবের এমন কথায় রীতিমত হাসির রোল উঠল। এমন একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে।

গেল ওয়ানডে বিশ্বকাপের সময় একটি বেসরকারি টিভিতে দেওয়া সাক্ষাৎকারে বাংলাদেশ দলের এক স্পিনার বলেছিলেন, ‘দোয়া করবেন, দোয়া ছাড়া কোনো অপশন নাই।’ সেসময় দলের ধারাবাহিক ব্যর্থতায় তার এমন বক্তব্য মেনে নিতে পারেননি ভক্তরা। সেই থেকে বাংলাদেশ দলকে নিয়ে ফেসবুকে ট্রল হচ্ছে ‘মায়ের দোয়া টিম’ হিসেবে।

দলের পাশাপাশি সময়টাও খুব একটা ভালো যাচ্ছে না সাকিবের। ব্যাটিংয়ের পাশাপাশি বোলিং নিয়েও ভুগছেন এই অলরাউন্ডার। তাই বিশ্বকাপে ভালো করতে হলে দ্রুত সাকিবের ফর্মে ফেরাটাও জরুরি। বিশ্বকাপে ‘ডি’ গ্রুপে বাংলাদেশ এরপর খেলবে দক্ষিণ আফ্রিকা, নেদারল্যান্ডস এবং নেপালের বিপক্ষে।

বরিশাল অবজারভার /  হৃদয়