আবারও সংসদনেতা হলেন শেখ হাসিনা

ডেস্ক রিপোর্ট :
আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা দ্বাদশ জাতীয় সংসদের নেতা নির্বাচিত হয়েছেন। আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) আওয়ামী লীগের এমপিদের শপথ শেষে সংসদীয় দলের সভায় শেখ হাসিনাকে সংসদনেতা নির্বাচিত করা হয়। একাদশ জাতীয় সংসদেরও নেতা ছিলেন শেখ হাসিনা।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তার নাম প্রস্তাব করেন এবং নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটন ওই প্রস্তাবের সমর্থন জানান। পরে সর্বসম্মতিক্রমে তা গৃহীত হয়।

সংসদনিতা নির্বাচনের পাশাপাশি বৈঠকে সংসদ উপনেতাও নির্বাচিত করা হয়। একাদশে জাতীয় সংসদের উপনেতা বেগম মতিয়া চৌধুরীকেই দ্বাদশ জাতীয় সংসদের উপনেতা নির্বাচিত করা হয়।

এদিকে সংসদীয় দলের সভায় বর্তমান স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীকে আবারও স্পিকার হিসেবে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত হয়। শামসুল হক টুকুকে আবারও ডেপুটি স্পিকার করা হয়।

এছাড়া নূর-ই-আলম চৌধুরী লিটনকে দ্বাদশ জাতীয় সংসদে চিফ হুইপ হিসেবে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত হয়েছে। লিটন চৌধুরী আওয়ামী লীগের সংসদীয় দলের সেক্রেটারি হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন।

শপথ নিলেন আওয়ামী লীগের নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা

ডেস্ক রিপোর্ট :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিজয়ী সংসদ সদস্যরা শপথ নিয়েছেন। আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) সকাল সোয়া ১০টার দিকে শেরেবাংলা নগরের সংসদ ভবনের পূর্ব ব্লকের প্রথম লেভেলের শপথকক্ষে এ শপথগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী শপথ বাক্য পাঠ করান।

এর মধ্য দিয়ে একাদশ সংসদ বিলুপ্ত এবং দ্বাদশ জাতীয় সংসদের যাত্রা শুরু হলো।

এর আগে সংসদের স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী শপথকক্ষে প্রবেশ করেন সকাল ১০টা ৮ মিনিটের দিকে। অবশ্য সকাল ১০টার আগেই নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যরা শপথ নিতে জাতীয় সংসদে উপস্থিত হন।

রোববারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা ২২২টি আসনে জয়লাভ করে এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা বিজয়ী হয় ৬২টি আসনে।

অপরদিকে, জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা ১১টি আসনে বিজয়ী হয়েছেন। আর বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ও বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির প্রার্থীরা একটি করে মোট তিনটি আসনে বিজয়ী হয়েছেন।

শপথের রেওয়াজ অনুযায়ী, যেহেতু স্পিকার নিজেই জয় পেয়েছেন প্রথমে তিনি নিজেকে নিজে এবং পরে সংখ্যাগরিষ্ঠ দলের সদস্যদের শপথ পাঠ করান।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

মির্জা ফখরুলকে জামিন দেননি হাইকোর্ট

ডেস্ক রিপোর্ট :
প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলার মামলায় বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে জামিন দেননি হাইকোর্ট। আজ বুধবার (১০ জানুয়ারি) বিচারপতি মো. সেলিম ও বিচারপতি শাহেদ নূরউদ্দিনের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ৭ ডিসেম্বর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে কেন জামিন দেওয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন হাইকোর্ট।

এক সপ্তাহের মধ্যে সরকারকে রুলের জবাব দিতে বলা হয়। তার আগে গত ৩ ডিসেম্বর এই মামলায় মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর হাইকোর্টে জামিন চেয়ে আবেদন করেন। এর আগে ২২ নভেম্বর তার জামিন নামঞ্জুর করেন নিম্ন আদালত।

গত ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে গুলশানের বাসা থেকে আটক করে নিয়ে যায় গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। পরদিন জামিন নামঞ্জুর করে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত ২৮ অক্টোবর (শনিবার) বিএনপির মহাসমাবেশ চলাকালে প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে রমনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে মামলা করে। সেই মামলায় মির্জা ফখরুল ছাড়াও দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাসসহ ৫৯ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়েছে।

ফখরুল-আব্বাস ছাড়াও মামলার উল্লেখযোগ্য আসামিরা হলেন- বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, আব্দুল আওয়াল মিন্টু, আহমেদ খান, অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন, নিতাই রায় চৌধুরী, শামসুজ্জামান দুদু, এয়ার ভাইস মার্শাল (অব.) আলতাফ হোসেন চৌধুরী, ব্যারিস্টার শাহজাহান ওমর, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির আহ্বায়ক আব্দুস সালাম, ভিপি জয়নাল, মহানগর উত্তর বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক ফরহাদ হালিম ডোনার ও সদস্য সচিব আমিনুল হক।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

রাজনীতিবিদদের বাঁচতে দিন, আদালতে মির্জা ফখরুলের আইনজীবী

ডেস্ক রিপোর্ট :
নাশকতার ৯ মামলায় নিজেকে গ্রেপ্তার দেখাতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের করা আবেদন মঞ্জুর করেছেন আদালত। একইসঙ্গে এসব মামলায় তার জামিন আবেদনের ওপর শুনানির জন্য আগামীকাল বুধবার (১০ জানুয়ারি) দিন ধার্য করেন বিচারক। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকার অতিরিক্ত চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট সুলতান সালাহউদ্দিন সোহাগের আদালত এ দিন ধার্য করেন। আদালতে মির্জা ফখরুলের আইনজীবী ওমর ফারুক ফারুকী বলেছেন, তিনি (মির্জা ফখরুল) অসুস্থ ব্যক্তি, বয়স্ক ব্যক্তি। রাজনীতিবিদদের বাঁচতে দিন। আইনে আছে, তাকে জামিন দেওয়া যায়, অন্য আসামিরা যেমন জামিন পাচ্ছে।

শুনানিতে মির্জা ফখরুলের আইনজীবী মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘পাকিস্তান আমলে বঙ্গবন্ধুসহ তিন হাজার আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়। স্বাধীন দেশেও এমন বিএনপির হাজার হাজার মানুষকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। মির্জা ফখরুল ইসলামকে বহির্বিশ্ব ক্লিন ইমেজের নেতা হিসেবে দেখে। অথচ তার নামে মিথ্যা মামলা দেওয়া হয়েছে। স্বাধীন দেশে আমরা এমন কিছু প্রত্যাশা করি না।’

আইনজীবী আরও বলেন, ‘৯ মামলার প্রত্যেকটিতে বলা হয়েছে গত ২৮ অক্টোবর মহাসমাবেশে মির্জা ফখরুল নাকি নাশকতার উসকানি দিয়েছে। সারা বিশ্ব জানে বিএনপি ভোটের অধিকারের জন্য লড়াই করছে। মির্জা ফখরুল ইসলাম যদি আপস করতেন তাহলে ৭৬ বছর বয়সে এখানে আসতে হতো না। গ্রেপ্তারের পর তার পাঁচ কেজি ওজন কমে গেছে। তাকে গ্রেপ্তারের উদ্দেশ একতরফা যেন ভোট করা যায়। তার হার্টের রোগ আছে। তার জামিন দেন। অতীতে তিনি জামিন নিয়ে শর্ত ভঙ্গ করেননি, এবারও করবেন না।’

আইনজীবী ওমর ফারুক ফারুকী শুনানিতে বলেন, তিনি (ফখরুল) বাংলাদেশের একজন জাতীয় নেতা। তিনি সাবেক মন্ত্রী ছিলেন। রাজনীতিবিদদের বাঁচতে দিন। অন্য আসামিরা যেমন জামিন পাচ্ছে। তিনি অসুস্থ ব্যক্তি, বয়স্ক ব্যক্তি। আইনে আছে তাদের জামিন দেওয়া যায়। তাকে জামিন দিন। মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের ১০০টির মতো মামলা রয়েছে। তিনি নিয়মিত আদালতে আসেন মামলার হাজিরার জন্য। তাকে জামিন দিলে তিনি শর্ত মেনে হাজিরা দেবেন।

মির্জা ফখরুলের আইনজীবী আব্দুস সালাম হিমেল এনটিভি অনলাইনকে বলেন, ‘ফখরুলকে গ্রেপ্তার দেখানোর মামলা গুলো হলো–পল্টন থানার ৫৪(১০)২৩, ৬০(১০)২৩, ২(১১) ২৩, ৪(১১)২৩, ৭(১১)২৩, ১৩(১১)২৩ ও রমনা থানার ২০(১০)২৩, ২৪(১০)২৩, ২৫(১০) ২৩।’ তিনি বলেন, ‘এসব মামলায় মির্জা ফখরুলকে এজাহারে আসামি করা হয়েছে। বেশিরভাগই তালিকার এক নম্বরে রাখা হয়েছে।’

এর আগে বেলা ১১টা ৪০ মিনিটে একটি গাড়িতে করে ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মির্জা ফখরুল ইসলামকে হাজির করা হয়। এ সময় তাকে আদালতের হাজতখানায় রাখা হয়।

গত ৩১ ডিসেম্বর ঢাকার চিফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মির্জা ফখরুলের পক্ষে জামিন আবেদন করা হয়। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারক আসামির উপস্থিতিতে জামিন শুনানির জন্য ৯ জানুয়ারি দিন ধার্য করেন। আজ সকালে মির্জা ফখরুলের আইনজীবী জয়নুল আবেদীন মেজবাহ বলেছিলেন, ‘নাশকতার ৯ মামলায় মির্জা ফখরুলের পক্ষে ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট রাজেশ চৌধুরীর আদালতে জামিন চেয়ে আবেদনের ওপর শুনানির চেষ্টা করা হয়। কিন্তু ওই সময় আদালত আবেদনটি গ্রহণ করেননি। এরপর আমরা উচ্চ আদালতে যাই। পরে আদালত আইন অনুযায়ী জামিন শুনানি গ্রহণের নির্দেশ দেন। এরপরে ৯ জানুয়ারি আবার নিম্ন আদালতে জামিনের আবেদন করি। আদালত মির্জা ফখরুলকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির করে তার উপস্থিতিতে জামিন শুনানির জন্য আজকের তারিখ ঠিক করেন।’

মামলার এজাহার থেকে জানা গেছে, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপির মহাসমাবেশের সময় প্রধান বিচারপতির বাসভবনে হামলা ও ভাঙচুরের অভিযোগে রমনা থানায় পুলিশ বাদী হয়ে একটি মামলা করে। ওই মামলায় মির্জা ফখরুলসহ ৫৯ নেতাকর্মীকে আসামি করা হয়। পরদিন ২৯ অক্টোবর সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গুলশানের বাসা থেকে মির্জা ফখরুলকে আটক করে ডিবি পুলিশ। দিনভর ডিবি কার্যালয়ে রাখার পর পুলিশের করা ওই মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে তাকে রাতে আদালতে নেওয়া হয়। আদালত তাকে কারাগারে পাঠান। এরপর থেকে কারাগারে রয়েছেন মির্জা ফখরুল।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

নবনির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ বুধবার

ডেস্ক রিপোর্ট :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান আগামীকাল বুধবার (১০ জানুয়ারি) অনুষ্ঠিত হবে। আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদের স্পিকারের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, শপথ অনুষ্ঠানের প্রস্তুতি নিচ্ছে সংসদ সচিবালয়।

রোববারের নির্বাচনে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা ২২২টি আসনে জয়লাভ করেন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৬২টি আসনে জয়লাভ করেন।

জাতীয় পার্টির প্রার্থীরা ১১টি আসনে বিজয়ী হয়েছেন এবং বাংলাদেশ ওয়ার্কার্স পার্টি, জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জাসদ) ও বাংলাদেশ কল্যাণ পার্টির প্রার্থীরা একটি করে মোট তিনটি আসনে বিজয়ী হয়েছেন।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

হেরে গেলেন মাহিয়া মাহি

ডেস্ক রিপোর্ট :
নির্বাচনী প্রচার প্রচারণায় বেশ সাড়া ফেলেন তিনি। তবে সে তুলনায় ভোটের ফলাফলের খুব বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতা গড়ে তুলতে পারেননি। ১৫৮টি ভোট কেন্দ্রের মধ্যে ১৩৬টি ভোট কেন্দ্রের ফলাফলে তিনি ট্রাক প্রতীকে ভোট পেয়েছেন ৮ হাজার ২৬২। এই আসনে বর্তমান সংসদ সদস্য ও নৌকার প্রার্থী ওমর ফারুক চৌধুরী পেয়েছেন ৮৬ হাজার ৮৪৬ ভোট। তার প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী গোলাম রব্বানী কাঁচি প্রতীকে পেয়েছেন ৭৪ হাজর ২৬১ ভোট।

মাহিয়া মাহি জানিয়েছেন, ফলাফল যাই হোক না কেন তিনি তা মেনে নেবেন। সামনের দিনে এলাকায় সাধারণ মানুষের সেবা করে যাবেন।

 
রোববার (৭ জানুয়ারি) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়। বিকেল ৪টায় ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার কিছুক্ষণ পরই গণনা শুরু হয়।
 
এ আসনে মোট ভোটার ৪৪০,২১৮ জন। এরমধ্যে পুরুষ ভোটার ২১৯,৬৫৩ এবং নারী ভোটার ২২০,৫৬৪ জন।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

বিপুল ভোটে জিতে নড়াইলবাসীকে ধন্যবাদ মাশরাফীর

ডেস্ক রিপোর্ট :
দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচনে নড়াইল-২ আসনে বিজয়ী হয়েছেন নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মাশরাফী বিন মোর্ত্তজা।

বিপুল ভোটে নড়াইল-২ আসনে বিজয়ী হয়েছেন মাশরাফী। 

রোববার (৭ জানুয়ারি) স্থানীয় সূত্র মতে, ১৪৭ কেন্দ্রে ১ লাখ ৮৯ হাজার ১০২ ভোট পেয়ে জয়ী হয়েছেন মাশরাফী।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

জয়ী হলেন যারা, এগিয়ে আওয়ামী লীগ

ডেস্ক রিপোর্ট :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষে শুরু হয়েছে ফলাফল ঘোষণা। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বেসরকারিভাবে যারা নির্বাচিত হয়েছেন :

আসন ১২, নীলফামারী : মো. আফতাব উদ্দিন সরকার-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১৩, নীলফামারীআসাদুজ্জামান নূর-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১৪, নীলফামারীসাদ্দাম হোসেন-স্বতন্ত্র-কাঁচি

আসন ১৭, লালমনিরহাট : নুরুজ্জামান আহমেদ-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২১, রংপুর : জি এম কাদের-জাতীয় পার্টি-লাঙ্গল

আসন ২৪, রংপুরশিরীন শারমিন চৌধুরী-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৩০, গাইবান্ধা : শাহ সারোয়ার কবীর-স্বতন্ত্র-ট্রাক

আসন ৩৫, জয়পুরহাট : সামছুল আলম দুদু-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন 8, নওগাঁ : সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্ত্তী-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৫০, নওগাঁ :  নিজাম উদ্দিন জলিল-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৫৩, রাজশাহী : মো. শফিকুর রহমান- স্বতন্ত্র- কাঁচি

আসন ৫৮, নাটোর : জয়ী মো. আবুল কালাম-স্বতন্ত্র-ঈগল

আসন ৫৯, নাটোর :  শফিকুল ইসলাম শিমুল-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৬০, নাটোর :  জুনাইদ আহ্‌মেদ পলক-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৭৩, মেহেরপুর : ফরহাদ হোসেন-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৭৪, মেহেরপুর : আবু সালেহ মোহাম্মদ নাজমুল হক-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৭৫, কুষ্টিয়া :  মো. রেজাউল হক চৌধুরী-স্বতন্ত্র-ট্রাক

আসন ৭৬, কুষ্টিয়া : মো. কামারুল আরেফিন-স্বতন্ত্র-ট্রাক

আসন ৭৭, কুষ্টিয়া : মো. মাহবুবউল আলম হানিফ-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৭৮, কুষ্টিয়া : আবদুর রউফ-স্বতন্ত্র-ট্রাক

আসন ৮১, ঝিনাইদহ : মো. আব্দুল হাই-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৮৫, যশোর : শেখ আফিল উদ্দিন-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৮৬, যশোর : আসনে জয়ী মো. তৌহিদুজজামান-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ৯০, যশোর : মো. আজিজুল ইসলাম-স্বতন্ত্র-ঈগল

আসন ৯১, মাগুরাসাকিব আল হাসান-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১০০, খুলনা : সেখ সালাহউদ্দিন- আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১১১, পটুয়াখালী : এ বি এম রুহুল আমিন হাওলাদার-জাতীয় পার্টি-লাঙ্গল

আসন ১১৩, পটুয়াখালী : এস এম শাহজাদা-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১১৪, পটুয়াখালী :  মো. মহিববুর রহমান-বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১১৫, ভোলা : তোফায়েল আহমেদ-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১১৯, বরিশাল : আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ্-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১২০, বরিশাল : রাশেদ খান মেনন-বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টি-নৌকা

আসন ১২১, বরিশালগোলাম কিবরিয়া টিপু-জাতীয় পার্টি-লাঙ্গল

আসন ১২২, বরিশালপংকজ দেবনাথ-স্বতন্ত্র-ঈগল

আসন ১২৩, বরিশাল : জাহিদ ফারুক-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১২৫, ঝালকাঠি : মুহাম্মদ শাহজাহান ওমর-বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১৩৭, টাঙ্গাইল : অনুপম শাহজাহান জয়-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ১৪৬, ময়মনসিংহ : মাহমুদুল হক সায়েম-স্বতন্ত্র-ট্রাক

আসন ১৬৭, কিশোরগঞ্জ : নাজমুল হাসান-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২১৭, গোপালগঞ্জ : শেখ হাসিনা-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২১৮, মাদারীপুর : নূর-ই-আলম চৌধুরী-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২২৬, সুনামগঞ্জ : এম এ মান্নান-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২৩৬, মৌলভীবাজার : শফিউল আলম চৌধুরী-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২৩৮, মৌলভীবাজার : মো. আব্দুস শহীদ-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২৫৫, কুমিল্লা : আসনে জয়ী প্রাণ গোপাল দত্ত-আওয়ামী লীগ – নৌকা

আসন ২৬০, চাঁদপুর : সেলিম মাহমুদ-আওয়ামী লীগ-নৌকা

আসন ২৮৩, চট্টগ্রাম : এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরী-আওয়ামী লীগ-নৌকা

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

৫৮ হাজারের বেশি ভোটে জিতলেন জিএম কাদের

ডেস্ক রিপোর্ট :
দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রংপুর-৩ (সদর) আসনে বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ কাদের (জিএম কাদের)।

নিকতম আলোচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী তৃতীয় লিঙ্গের ঈগল প্রতীকের আনোয়ারা ইসলাম রানীকে তিনি ৫৮ হাজার ৫৪২ ভোটে হারিয়েছেন।

রংপুর-৩ সদর আসনে মোট ১৭৫টি কেন্দ্রের ফলাফল অনুযায়ী জিএম কাদের লাঙ্গল প্রতীকে ভোট ৮১ হাজার ৮৬৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে জয়ী হয়েছেন। তার নিকতম প্রতিদ্বন্দি আলোচিত স্বতন্ত্র প্রার্থী তৃতীয় লিঙ্গের ঈগল প্রতীকের আনোয়ারা ইসলাম রানী পেয়েছেন ২৩ হাজার ৩২৬ ভোট।

রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র এসব তথ্য জানিয়েছে।

আজ সকাল ৮টায় দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শুরু হয় এবং চলে বিকাল ৪টা পর্যন্ত।

ভোটগ্রহণ শেষে আজ রবিবার সন্ধ্যায় নির্বাচন কমিশন ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কাজী হাবিবুল আউয়াল বলেন, ‘সারাদেশে প্রায় ৪০ শতাংশ ভোট পড়েছে। এখন পর্যন্ত এটাই নির্ভরযোগ্য তথ্য। পরে সব তথ্য যোগ হলে এই তথ্য বাড়তে বা কমতে পারে।’

বরিশাল অবজারভার /  হৃদয়

ভোলা-৪ আসনে জ্যাকব বিজয়ী

ডেস্ক রিপোর্ট :
ভোলা-৪ (চরফ্যাসন-মনপুরা) আসনে আওয়ামী লীগের হেভিওয়েট প্রার্থী আবদুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকব পেয়েছেন ২ লাখ ৪৪ হাজার ৩৬ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি জাতীয় পার্টির মিজানুর রহমান পেয়েছেন ৫৯১৮ ভোট।

আবুল ফয়েজ (স্বতন্ত্র) ৪৯০২, মোঃ হানিফ (তৃণমূল বিএনপি) সোনালী আঁশ ৩৩২৯, আলাউদ্দিন ন্যাশনাল (পিপলস পার্টি) আম প্রতীকে ২৩৪৩ ভোট পেয়েছেন।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়