রবিবার, ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:৪৮ অপরাহ্ন

মমতা বাংলাদেশিদের ফুফু, রোহিঙ্গাদের খালা: বিজেপি নেতা

মমতা বাংলাদেশিদের ফুফু, রোহিঙ্গাদের খালা: বিজেপি নেতা

পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বাংলাদেশিদের ফুফু, রোহিঙ্গাদের খালা বলে ব্যাঙ্গ করেছেন পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

শনিবার  ডানকুনিতে বিজেপির যে ‘রথযাত্রা’ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারী এ কটাক্ষ করেন।

মমতাকে ইঙ্গিত করে শুভেন্দু বলেন, তিনি বাংলার মেয়ে নন, বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের ফুফু, আর রোহিঙ্গাদের খালা’।

ডানকুনিতে ‘রথযাত্রা’র সূচনা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে এ ভাষাতেই আক্রমণ করলেন শুভেন্দু অধিকারী।

তিনি বলেন, প্রত্যেকটি থানার পুলিশ, আইবি ও সিআইডি আধিকারিকরা বিরোধীদের ফোনে আড়ি পাতছে। এই প্রশাসনের খোলনলচে পাল্টে ফেলতে হবে। পশ্চিমবঙ্গে জঙ্গলরাজ চলছে। প্রশাসন-পুলিশকে নির্লজ্জভাবে ব্যবহার করা হচ্ছে। তৃণমূল মানে এনামূল, এই মডেলকে ব্যবহার করা হচ্ছে। স্বচ্ছভাবে ভোট করানোর উদ্যোগ নিয়েছে কমিশন। তবে না আঁচালে বিশ্বাস নেই, সতর্ক থাকতে হবে’।

মমতাকে কটাক্ষ করে শুভেন্দু আরও বলেন, ‘দিদির দূত হয়ে ঘুরছে তোলাবাজ ভাইপো। দুয়ারে সরকার নয়, দুয়ারে সিবিআই’। তৃণমূলের ‘বাংলার গর্ব মমতা’ কর্মসূচিকে কটাক্ষ করতে ছাড়েননি তিনি। বলেন, ‘রবীন্দ্রনাথ, বিবেকানন্দ থাকতে মমতাকে কেন বাংলার গর্ব হতে যাবেন’?

কমিশনের কাছে শুভেন্দুর দাবি, ‘নবান্নে নির্বাচনী সেল খোলা হয়েছে। মুখ্যসচিবের নেতৃত্বে এই সেল চালানো যাবে না। ম্যাম-ম্যাম করা লোকেদের নবান্নে বসিয়ে ইলেকশন করা যাবে না। প্রত্যেকটি থানার পুলিশ, আইবি ও সিআইডি আধিকারিকরা বিরোধীদের ফোনে আড়ি পাতছে। এই প্রশাসনের খোলনলচে পাল্টে ফেলতে হবে। না হলে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট হবে না’।

এদিকে নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে পারেন শুভেন্দু অধিকারী৷ বিজেপি সূত্রের বরাত দিয়ে এ খবর জানিয়েছে জিনিউজ।

খবরে বলা হয়, শুভেন্দুর নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হওয়া কার্যত নিশ্চিত। বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির বৈঠকেই এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে।

আগামী ৪ মার্চ দিল্লিতে বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ওই বৈঠকেই রাজ্যে বিজেপির প্রার্থী তালিকা নিয়ে আলোচনা হওয়ার কথা৷ রাজ্যে প্রথম দফার ভোট ২৭ মার্চ। দ্বিতীয় দফার ভোট রয়েছে ১ এপ্রিল। নন্দীগ্রামে ভোট রয়েছে ১ এপ্রিল৷ সূত্রের খবর, বিজেপির প্রথম দফার যে প্রার্থী তালিকা প্রকাশিত হবে, তাতেই নাম থাকবে শুভেন্দু অধিকারীর৷

প্রসঙ্গত, বিজেপিতে যোগ দেয়ার আগে মমতার নেতৃত্বাধীন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পরিবহন মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছিলে শুভেন্দু অধিকারী। গত বছরের ২৭ নভেম্বর রাজ্যের মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। এরপর ১৬ ডিসেম্বর তিনি বিধানসভায় গিয়ে বিধায়ক পদ থেকে পদত্যাগ দেন। আর তার ঠিক ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই ১৭ ডিসেম্বর তিনি তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখে তৃণমূলের সব সদস্যপদ ছেড়ে দিয়ে  দেন।

শুভেন্দু অবশ্য আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে দাবি করে আসছেন, নন্দীগ্রামে অন্তত ৫০ হাজার ভোটে হারবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। প্রার্থী হওয়ার বিষয়টি দলীয় নেতৃত্বের হাতেই ছেড়েছিলেন তিনি। তবে গত বুধবার উত্তর কলকাতায় সভা করতে এসে শুভেন্দু ইঙ্গিতপূর্ণভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে বলেছিলেন, ‘নন্দীগ্রাম থেকে আমি ওঁকে হারাব৷’ এর পরই শুভেন্দুর নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হওয়া নিয়ে জল্পনা শুরু হয়।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved by barishalobserver.Com
Design & Developed BY Next Tech