খুলনায় জুট মিলে ভয়াবহ আগুন, নিয়ন্ত্রণে ১১ ইউনিট

ডেস্ক রিপোর্ট :
খুলনার রূপসা উপজেলার জাবুসায় খুলনা-মোংলা মহাসড়কের পাশে একটি জুট মিলে ভয়াবহ আগুন লেগেছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের ১১টি ইউনিট কাজ করছে। আজ বুধবার (৩ এপ্রিল) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার ৩ নম্বর নৈহাটি ইউনিয়নের জাবুসা চৌরাস্তাসংলগ্ন সালাম জুট মিলে এ ঘটনা ঘটে।

মুহূর্তের মধ্যে আগুনের লেলিহান শিখা পার্শ্ববর্তী দুটি গুদামে ছড়িয়ে পড়ে। এসময় গুদামে কর্মরত শ্রমিকরা ভয়ে গুদাম থেকে বেরিয়ে আসে।

কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শী জানান, প্রথমে পাটকলের ৩ নম্বর গুদামে আগুন লাগে। শুকনো পাট হওয়ায় দ্রুত আগুন কারখানায় সবখানে ছড়িয়ে পড়ে। এ জন্য আগুন নেভাতে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের বেগ পেতে হচ্ছে। তাৎক্ষণিকভাবে অগ্নিকাণ্ডে হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। এই রিপোর্ট (রাত সাড়ে ৯টা) লেখা পর্যন্ত আগুন জ্বলছে।

দুর্ঘটনার বিপরীতে বিমা রয়েছে দাবি করে মিলের মালিক আব্দুস সালাম জানান, আগুনে তাঁর প্রায় শত কোটি টাকার ওপরে পাট ও যন্ত্রপাতির ক্ষতি হয়েছে। তিনটি গুদামে ৭৫০ টন উৎপাদিত পণ্য ছিল। তবে হতাহতের কোন খবর পাওয়া যায়নি

জনতা ব্যাংক পিএলসির খুলনা শাখার এজিএম জানান, এই মিলের যন্ত্রপাতির বিপরীতে তাদের এখনও ৩০-৪০ কোটি টাকার বিনিয়োগ আছে।

পাটকলটির ম্যানেজার বশির আহম্মেদ জানান, ৩ নং গুদামে অবস্থিত একটি মেশিনে যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে শর্টসার্কিট হয়ে অগ্নিকাণ্ড ঘটে। অল্প সময়ের মধ্যে ১ নং এবং ২ নং গুদামেও অগ্নিকাণ্ড ছড়িয়ে পড়ে।

খুলনা ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক মো. ফারুক হোসেন সিকদার রাত ৯টার দিকে এনটিভিকে বলেন, আগুনের খবর পেয়ে খুলনা সদর, খালিশপুর, দৌলতপুর, রূপসা, ফকিরহাট ও বটিয়াঘাটার মোট ১১টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে। নৌ-বাহিনীর দুটি ইউনিট আমাদের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। আগুন মোটামুটি নিয়ন্ত্রণে চলে এসেছে। যেহেতু পাটের গুদামে আগুন লেগেছে, তাই পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসতে আরও কয়েক ঘণ্টা সময় লাগবে। সামনে ও পেছনে দুটি গুদাম আমরা রক্ষা করতে পেরেছি। তবে আগুন লাগার কারণ ও ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানা যায়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *