২৪ ঘণ্টার চেষ্টায় পানির ট্যাংকি থেকে লাশ উদ্ধার

ডেস্ক রিপোর্ট :
কুমিল্লার হোমনায় পুলিশ ও দমকল বাহিনীর ২৪ ঘণ্টার যৌথ চেষ্টায় পৌরসভার নির্মাণাধীন একশ ফুট উচ্চতার একটি পানির ট্যাংক থেকে অর্ধগলিত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের পুরাতন ডাকবাংলো এরিয়া থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

হোমনা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ক্ষেমালিকা চাকমা বলেন, দেবিদ্বার পৌরসভায় পানি সাপ্লাইয়ের জন্য অনুরূপ একটি ট্যাংকি নির্মাণ করতে হোমনা পৌরসভার নির্মাণাধীন পানির ট্যাংকটি পরিদর্শনে আসেন দেবিদ্বার পৌরসভার লোকজন। মেসার্স জিলানী কনস্ট্রাকশনের নির্মাণ শ্রমিক মিজান ট্যাংকটি পরিদর্শনের জন্য ওপরে ওঠেন। মিজান ২৩ ফুট গভীরতার ওই ট্যাংকির এক পাশের ভয়েড দিয়ে ভেতরে উঁকি দিলে এটির ভেতরে আধো আলো আধো অন্ধকারে মানুষের লাশ সদৃশ একটা কিছু দেখতে পান। বিষয়টি সাইট প্রকৌশলীকে জানান। রবিবার সাইট ম্যানেজার মো. রায়হান সওদাগর বিষয়টি আমাকে জানান। পরে থানা ও ফায়ার সার্ভিসকে লাশটি উদ্ধারের নির্দেশ দেই।

হোমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জয়নাল আবেদিন জানান, ২৪ ঘণ্টা পর লাশটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি ধারণা করে বলেন, কোনো ভারসাম্যহীন ব্যক্তি সিঁড়ি বেয়ে সুউচ্চ পানির ওই ট্যাংকিতে ওঠে ভেতরে কী আছে দেখতে গিয়ে পড়ে মৃত্যুবরণ করেন। তার বয়স আনুমানিক ৩০-৩৫ হতে পারে। পরনে কোনো জামা কাপড় ছিল না। ধারণা করা হচ্ছে ১০/১২ দিন আগেই তার মৃত্যু হয়েছে। তবে এর কারণ অনুসন্ধানে পুলিশের তদন্ত অভিযান অব্যাহত আছে।

হোমনা ফায়ার সার্ভিস স্টেশন অফিসার মাজেদুল ইসলাম জানান, পানির ট্যাংকি ছিল ভূমি থেকে ১০০ ফুট ওপরে এবং এর গভীরতা ছিল ২৩ ফুট। এর ভেতরে প্রবেশের মুখটি খুব সরু এবং বন্ধ থাকায় রবিবার দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত চেষ্টা করেও লাশটি বের করা যায়নি। সোমবার সকাল থেকে চেষ্টার পর এর ঢাকনাটি ভেঙে ভেতর থেকে লাশটি বের করা হয়।

বরিশাল অবজারভার / হৃদয়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *