সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৬:৪৪ পূর্বাহ্ন

পরমাণু যুদ্ধ হলে ৫০০ কোটি মানুষের মৃত্যু হতে পারে

পরমাণু যুদ্ধ হলে ৫০০ কোটি মানুষের মৃত্যু হতে পারে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : 
যুক্তরাষ্ট্র ও রাশিয়ার বর্তমান সম্পর্ক এবং তাইওয়ান ইস্যুতে চীনের সঙ্গে চলমান উত্তেজনা এ বিষয়টিকে আরও বিশ্বাসযোগ্য করে তুলছে।

তবে বিশ্বে পারমাণবিক যুদ্ধ শুরু হলে বিশ্বের ৫০০ কোটি মানুষ মারা যেতে পরে। বিজ্ঞান সাময়িকী নেচারে প্রকাশিত এক নিবন্ধ হতে এ তথ্য জানা গেছে। খবর সিবিএস নিউজের।

রাশিয়ার অভিযোগ, অন্য দেশগুলোর নিরাপত্তা ও স্বার্থ বিঘ্নিত করে যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকাণ্ড বিশ্বে পরমাণু যুদ্ধের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে। গত সোমবার ওয়াশিংটনে অবস্থিত রাশিয়ার দূতাবাসের এক বিবৃতিতে এই অভিযোগ তোলা হয়েছে। বিপরীতে ইউক্রেন ইস্যুতে রাশিয়াই পরমাণু যুদ্ধ শুরু করতে পারে এমন অভিযোগ প্রতিনিয়ত করে আসছে পশ্চিমা বিশ্ব।

এমন পরিস্থিতিতে এক গবেষণায় দাবি করা হয়েছে, পরমাণু শক্তিধর এ দুটি দেশ পরমাণু যুদ্ধে জড়ালে বিশ্বে ৫০০ কোটি মানুষ অন্তত এক দশক না খেয়ে থাকবে এবং মৃত্যুর মুখোমুখি হবে।

এমনকি অপেক্ষাকৃত ভারত-পাকিস্তান পরমাণু যুদ্ধে জড়ালেও প্রায় ২৫ কোটি মানুষকে দুই বছর না খেয়ে থাকতে হবে। এমনকি এই দুই দেশের মধ্যে পরমাণু যুদ্ধ শুরু হলে অন্তত ২০০ কোটি মানুষ মারা যেতে পারে।

বিজ্ঞান সাময়িকী নেচারে প্রকাশিত গবেষণাপত্রে বলা হয়েছে, পরমাণু যুদ্ধের কারণে খাদ্য উৎপাদন ও সরবরাহ ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় এমন বিপর্যয় ঘটবে। হংকংভিত্তিক সংবাদমাধ্যম এশিয়া টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পরমাণু যুদ্ধ হলে বোমা হামলার কারণে শহর ও শিল্প এলাকা ধ্বংস হয়ে যাবে। বায়ুমণ্ডল বিপুল পরিমাণ ছাই ও কার্বনের ধুলিতে ঢেকে যাবে। এটি পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে পড়লে ভূপৃষ্ঠে ঠিকমতো সূর্যের আলো পৌঁছাবে না। ফলে স্বাভাবিকভাবেই খাদ্য উৎপাদন ব্যাহত হবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved by barishalobserver.Com
Design & Developed BY Next Tech