সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২, ০৭:৩১ পূর্বাহ্ন

পর্যটকদের মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে কুয়াকাটা সৈকত

পর্যটকদের মিলন মেলায় পরিনত হয়েছে কুয়াকাটা সৈকত

এস এম আলমাস,কুয়াকাটা(মহিপুর): সূর্যোদয় ও সূর্যাস্তের লীলাভূমি সাগরকন্যা কুয়াকাটা। ঈদুল আজহার ছুটিতে এই সৈকতে রেকর্ড সংখ্যক পর্যটকের দেখা মেলে যা পদ্মা সেতুর সুফল বলে মনে করছেন পর্যটন সংশ্লিষ্টরা। শুক্রবার সকাল থেকেই সৈকতে গোসলে মেতেছেন হাজার হাজার পর্যটক। গত ১২ জুলাই থেকে ঢল শুরু হয় এই পর্যটন কেন্দ্রটিতে। লম্বা এই ছুটিকে কেন্দ্র করে অগ্রীম বুকিং হয়েছিল কুয়াকাটার সকল হোটেল-মোটেল তাই বুকিং না দিয়ে আসা পর্যটকরা অতিরিক্ত ভাড়ায় রুম বুকিং কিংবা রুম না পেয়ে ফিরে যাওয়ার মত বিড়ম্বনায়ও পড়েছেন। আগত পর্যটকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, পদ্মা সেতু হয়ে কুয়াকাটা ভ্রমন এখন অতি সহজ এবং আনন্দদায়ক যে কারনে পর্যটকরা এই সৈকতে ভ্রমনের জন্য এসেছেন। হোটেল সমুদ্র বিলাসের ব্যবস্থপনা পরিচালক ডা. ইসমাইল ইমন দৈনিক শাহনামা কে জানান, গত চারদিন পর্যন্ত আমাদের হোটেল শতভাগ বুকিং তাই আগত পর্যটকরা যদি অগ্রীম হোটেল বুকিং করে আসে তাহলে ভোগান্তিতে পরবে না। তিনি আরো জানান, পদ্মা সেতু খুলে দেওয়ায় আমরা বেশ লাভবান এখন, গত করোনাকালীন সময়ের লোকসান কাটিয়ে উঠতে পারবো বলে মনে হচ্ছে। কুয়াকাটা ট্যুরিজম ম্যানেজমেন্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি নাসির উদ্দিন বিপ্লব শাহনামাকে জানান, বর্তমানে কুয়াকাটা আগত পর্যটকদের দ্বারা অব্যাহত থাকবে বলে আমি মনে করি । পর্যটকদের জন্য বিনোদনের স্থান বৃদ্ধি ও উন্নতমানের স্থাপনা তৈরিতে ঝুঁকছে বিনিয়োগকারীরা। আশাকরি এই সংকট আর থাকবে না। ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা জোন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল কালাম আজাদ দৈনিক শাহানামা কে জানান, অতিরিক্ত পর্যটক হওয়ায় আমরা ট্যুরিস্ট পুলিশ, ফায়ার সার্ভিস সহ কয়েকটি ভাগে ভাগ হয়ে কাজ করছি পর্যটকদের সর্বোচ্চ সেবা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে।




Leave a Reply

Your email address will not be published.




© All rights reserved by barishalobserver.Com
Design & Developed BY Next Tech