শুক্রবার, ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ০২:০৮ পূর্বাহ্ন

সংবাদ শিরোনাম :
বাংলাদেশকে অভিনন্দন জানাল যুক্তরাষ্ট্র দেশবাসীকে শপথ পড়াবেন প্রধানমন্ত্রী এএসপি হলেন ২৭ পরিদর্শক কলাপাড়ায় ১৪ মণ জাটকা ইলিশ জব্দ, তিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা প্রতি বছর করোনার টিকা নেওয়া লাগতে পারে : ফাইজার প্রধান বরিশালে সিটি মেয়রের উদ্যোগে অসহায়দের ৫৫ লাখ টাকা অর্থ সহায়তা প্রদান বরিশালে ইলিশ সম্পদ উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ের অবহিতকরণ কর্মশালা বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ে ১২তম স্নাতক গণিত অলিম্পিয়াড ২০২১ এর পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত বরিশালে পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২যুগ পূর্তি উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পূস্পার্ঘ অপর্ণ ভারতেও ঢুকে পড়ল ওমিক্রন, শনাক্ত দুই
বরিশাল মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি ফারুককে কেন্দ্রের তিরস্কার

বরিশাল মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি ফারুককে কেন্দ্রের তিরস্কার

বরিশাল মহানগর বিএনপির ১ নম্বর সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান খান ফারুককে দলের কেন্দ্রীয় কমিটি থেকে তিরস্কার করা হয়েছে। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে মূল স্রোতের বাইরে গিয়ে আলাদা কর্মসূচি পালন করায় তাকে এই তিরস্কার করা হয়। একইসাথে ভবিষ্যতে তাকে এ ধরনের কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে বলা হয়েছে।

গত ৭ অক্টোবর বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত সৈয়দ ইমরান সালেহ প্রিন্স স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই তিরস্কার ও সতর্ক করা হয়।

চিঠিতে বলা হয়, ‘শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৪০তম শাহাদাত বার্ষিকীতে মহানগর বিএনপির কর্মসূচির বিপরীতে আপনার নেতৃত্বে পাল্টা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। যা তদন্তে প্রমাণিত হয়েছে। এটা মোটেই সমীচীন হয়নি এবং এটা সংগঠন বিরোধী। তাই নির্দেশক্রমে আপনাকে এই ঘটনায় তিরস্কার পূর্বক সতর্ক করা যাচ্ছে যে, আপনি এহেনে কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকবেন।

দলীয় সূত্র জানায়, জিয়াউর রহমানের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে গত ৩০ মে বরিশাল মহানগর বিএনপির সভাপতি ও কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মজিবর রহমান সরোয়ারের নেতৃত্বে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও মিলাদের আয়ােজন করা হয়। একই সময়ে বরিশাল প্রেসক্লাব মিলনায়তনে মহানগর বিএনপির ১ নম্বর সহ-সভাপতি মনিরুজ্জামান খান ফারুক পাল্টা  আলোচনা ও দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। এতে সরোয়ার বিরোধী সাবেক ছাত্র ও যুবদল নেতারা অংশ নেন। পাল্টাপাল্টি এই আয়োজনের মধ্য দিয়ে বরিশাল মহানগর বিএনপিতে সরোয়ার বিরোধী গ্রুপ নিজেদের সক্রিয়তার জানান দেয়। বিষয়টি সরোয়ারের পক্ষের নেতারা লিখিতভাবে কেন্দ্রে অভিযোগ করেন। কেন্দ্রীয় কমিটি ওই অভিযোগের তদন্ত শেষে ফারুককে তিরস্কার ও সতর্ক করে।

এ বিষয়ে মনিরুজ্জামান খান ফারুক বলেন, মহানগর বিএনপির অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীদের অনুরোধে আমরা এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিলাম। এ জন্য দল আমাকে সতর্ক করেছে। আমি ভবিষ্যতে দলের এই শৃঙ্খলার প্রতি সম্মান জানাব। ওই অনুষ্ঠান মজিবর রহমান সরোয়ারের একক কর্তৃত্ব ও যোগ্য নেতা-কর্মীদের কোণঠাসা করে রাখার পুঞ্জীভূত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ ছিল বলে জানান তিনি।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved by barishalobserver.Com
Design & Developed BY Next Tech