বুধবার, ২৮ জুলাই ২০২১, ১০:২১ পূর্বাহ্ন

আমতলীতে নেই অক্সিজেন প্লান্ট নেই, বিপাকে প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত রোগীরা

আমতলীতে নেই অক্সিজেন প্লান্ট নেই, বিপাকে প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত রোগীরা

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি:
বরগুনার আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নেই। প্লান্ট না থাকায় হাইফ্লোতে প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের অক্সিজেন সরবরাহ করা যাচ্ছে না। এতে রোগীরা জীবন নিয়ে শঙ্কায় আছেন। দ্রুত হাসপাতালে সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।
জানাগেছে, আমতলী উপজেলায় গত চার মাসে ২’শ ২৫ জন প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে অধিকাংশ আক্রান্ত রোগী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের করোনা ইউনিটে চিকিৎসা নিয়ে সুস্থ্য হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন। কিন্তু গত ২০ দিন ধরে উপজেলায় করোনার প্রকোপ মারাত্মক আকার ধারন করেছে। হাসপাতালের ২০ শয্যার করোনা ইউনিটে ১৫ জন রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। কিন্তু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নেই। অক্সিজেন প্লান্ট না থাকায় সিলিন্ডারের অক্সিজেন ব্যবহার করতে হচ্ছে করোনা রোগীদের। এতে রোগীরা প্রয়োজনীয় অক্সিজেন পাচ্ছে না। হাইফ্লোতে অক্সিজেন সরবরাহ না হওয়ায় রোগীরা জীবন নিয়ে শঙ্কায় আছেন। দ্রুত সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা। এদিকে গত ফেব্রুয়ারী মাসে একটি বে-সরকারী কোম্পানী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেন্টাল অক্সিজেন প্লাণ্ট নির্মাণের উদ্যোগ নেয়। কিন্তু মন্ত্রনালয়ের অনুমতি না থাকায় ওই কোম্পানী প্লান্ট নির্মাণ করতে পরেনি। গত এপ্রিল মাসে সেন্টাল প্লান্ট নির্মাণের
অনুমতি চেয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আবদুল মুনয়েম সাদ স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে আবেদন করেন। গত তিন মাস ধরে ওই আবেদন মন্ত্রনালয়ে ঝুলে আছেন। দ্রুত মন্ত্রনালয়ের অনুমতি সাপেক্ষে সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের দাবী জানিয়েছেন ভুক্তভোগীরা।
শনিবার আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা গেছে, করোনা ইউনিটে ১৫ জন রোগী ভর্তি আছেন। রোগীরা সিলিন্ডারের অক্সিজেন ব্যবহার করছে। এতে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন পাচ্ছে না রোগীরা।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন কয়েকজন রোগী বলেন, শ^াস কষ্ট লাঘবে সিলিন্ডারের অক্সিজেন ব্যবহার করতে হচ্ছে। এতে প্রয়োজনীয় অক্সিজেন সরবরাহ হচ্ছে না। সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট হলে অতিমাত্রায় অক্সিজেন পেতাম তাহলে এতো কষ্ট পেতে হতো না। দ্রুত সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের দাবী জানান তিনি।
রোগীর স্বজনরা বলেন, স্বল্পতার কারনে সিলিন্ডারের অক্সিজেন সব সময় পাওয়া যাচ্ছে না। সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট হলে এই সমস্যা হতো না। দ্রুত সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের দাবী জানান তারা।
আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ আবদুল মুনয়েম সাদ বলেন, সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণ করা হলে রোগীদের উচ্চ মাত্রায় অক্সিজেন সরবরাহ করা যেত। এতে রোগীদের শ^াস কষ্ট লাঘব হতো। একটি বে-সরকারী কোম্পানী সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছিল কিন্তু মন্ত্রনালয়ের অনুমতি না থাকায় নির্মাণ করতে পারেনি। তিনি আরো বলেন, সেন্টাল অক্সিজেন প্লান্ট নির্মাণের অনুমিত চেয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ে আবেদন করেছি। অনুমতি পেলেই বেসরকারী কোম্পানীর সাথে যোগাযোগ করে নির্মাণের উদ্যোগ নেয়া হবে।




Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *




© All rights reserved by barishalobserver.Com
Design & Developed BY Next Tech