তাজা ফল সংরক্ষণ করুন ৫ উপায়ে

লাইফস্টাইল ডেস্ক :
আমরা বাজার থেকে দেখেশুনে তাজা ফলগুলোই কিনে থাকি। অথচ সেই তাজা ফল রাখা যায় না বেশি দিন। দ্রুতই পচন ধরে। অনেকেই মনে মনে এগুলো আরও কিছুদিন রাখার উপায় খোঁজেন। তাদের জন্য আজকের টিপসগুলো। এগুলো অনুসরণ করে আপনি অনেক দিন ফল রেখে খেতে পারবেন।

টকজাতীয় ফল

টকজাতীয় ফল, যেমন—লেবু, কমলা, তেঁতুল এগুলো একটি ঠান্ডা এবং শুষ্ক জায়গায় খোলা রাখা ভাল। এসব ফল ফ্রিজে রাখলে জলের পরিমাণ কিছুটা কমতে পারে। তবে, এক মাস পর্যন্ত সতেজতা ধরে রাখতে সাহায্য করে।

আপেল

সংরক্ষণের ওপর নির্ভর করবে আপেল কয়দিন তাজা থাকবে। আপেল কেনার সময় দাগহীনগুলো বেছে নিন। এগুলো ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন। এতে প্রায় দুই সপ্তাহ পর্যন্ত ফলগুলো ভাল থাকবে।

আনারস

আনারস কেটে স্বাভাবিক ঘরের তাপমাত্রায় রাখলে দ্রুত পচে যায়। একটি আস্ত আনারস তিন দিন পর্যন্ত ভালো থাকে। তবে, কাটা আনারস একটি বায়ুরোধী পাত্রে ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন। তাহলে এর মিষ্টি টেক্সচার বজায় থাকবে অনেকদিন।

কলা

কলা খুব সহজে পচে যায়। কারণ, এটি খুব তাড়াতাড়ি পেকে যায়। চার থেকে পাঁচ দিন পর থেকেই কলা পচতে শুরু করে। বাইরের খোসা কালো হয়ে যায়। এজন্য কলার গুচ্ছের শেষাংশ কিছু দিয়ে পেঁচিয়ে নিন। এরপর ফ্রিজের শুকনো জায়গায় সংরক্ষণ করুন। এতে কলা অনেক দিন তাজা থাকবে।

তরমুজ

তরমুজ কাটার পরে তার সতেজতা ধরে রাখা একটি কঠিন কাজ।  তবে, সঠিক উপায়ে রাখলে কমপক্ষে চার দিন থকে এক সপ্তাহ তরমুজ খাওয়ার উপযোগী থাকে। তরমুজ কাটার পর অবশিষ্ট অংশ বায়ুরোধী পাত্রে সংরক্ষণ করুন।  এবার ফ্রিজে রেখে দিন।

সাভারে নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধসে আহত ১৬

ডেস্ক রিপোর্ট:
সাভারে বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠানের নির্মাণাধীন ভবনের ছাদ ধসে ১৬ জন আহত হয়েছেন। আজ শুক্রবার (১০ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ডিইপিজেডের ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মো. জহিরুল ইসলাম এনটিভিকে এই তথ্য জানিয়েছেন।

মো. জহিরুল ইসলাম বলেন, ‘আশুলিয়ার গনকবাড়িতে অবস্থিত বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি গবেষণা প্রতিষ্ঠানে নির্মাণ কাজ চলছিল। সেখানে ১০ম তলার ছাদে বিম ঢালাইয়ের সময় তার কিছু অংশ ধসে পড়ে। ফলে অনেকে আহত হন। হঠাৎ বিকট শব্দে আমি নিজেই আমাদের চারটি ইউনিট নিয়ে সেখানে যায়। এ ছাড়া জিরাবো থেকে আরও দুটি ইউনিট আমাদের সঙ্গে যোগ দেয়।’

এক প্রশ্নে ফায়ার সার্ভিসের এই কর্মকর্তা বলেন, ‘এই ঘটনায় ১৬ জন আহত হয়েছেন। আমরা আহতদের উদ্ধার করে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে নিয়ে যাই। সেখানে তারা চিকিৎসাধীন।’

মো. জহিরুল ইসলাম আরও বলেন, ‘ভবন নির্মাণ তদারকির দায়িত্বরতদের সঙ্গে কথা বলে জেনেছি, কেউ নিখোঁজ নেই।’

রমজানের প্রস্তুতি নিন এভাবে

লাইফস্টাইল ডেস্ক :
শাবান মাস শেষের পথে। এর পরই পবিত্র মাস মাহে রমজান। এই শাবান মাস থেকেই নিতে হবে রমজানের প্রস্তুতি। রসুল (সা.) এ মাসে বেশি বেশি নফল ইবাদত করতেন ও রোজা রাখতেন। হজরত আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত, “আল্লাহর রসুল (সা.) এমনভাবে সিয়াম পালন করতেন যে, আমরা বলতাম তিনি মনে হয় আর সিয়াম ভঙ্গ করবেন না। আমি রসুল (সা.)-কে রমজান ছাড়া অন্য কোনো মাসের গোটা অংশ রোজা পালন করতে দেখিনি এবং শাবান ছাড়া অন্য কোনো মাসে অধিক সিয়াম পালন করতে দেখিনি” (বুখারি)। আয়েশা (রা.) থেকে বর্ণিত, “রসুল (সা.) শাবান মাসের তারিখ এতটাই মনে রাখতেন যে, যতটা অন্য মাসের তারিখ মনে রাখতেন না। শাবানের ২৯ তারিখে চাঁদ দেখা গেলে পর দিন রমজানের রোজা রাখতেন। আর সে দিন আকাশ মেঘাচ্ছন্ন থাকলে শাবান ৩০ দিন পূর্ণ করে রমজানের রোজা শুরু করতেন” (আবু দাউদ)। শাবান মাসকে বলা হয় কোরআন তেলাওয়াতকারীদের মাস। শাবান মাস শুরু হলে আমর ইবনে কায়েস তার দোকান বন্ধ রাখতেন এবং কোরআন তেলাওয়াতের জন্য অবসর নিতেন। রজব মাস হলো বীজ বপনের মাস আর শাবান মাস হলো খেতে সেচ প্রদানের মাস এবং রমজান হলো ফসল তোলার মাস। সুতরাং শাবান মাসেই আমাদের রমজানের জন্য পুরোদমে তৈরি হতে হবে। রমজান মাসের ফরজ রোজা রাখা ছাড়াও রসুল (সা.) শাবান মাসে নফল রোজা রাখতেন। এবং এই শাবান মাসে রোজা রাখাকে তিনি অনেক বেশি ফজিলত হিসেবে মনে করতেন। ইবনে মালিক (রা.) থেকে বর্ণিত, মহানবী (সা.)-কে জিজ্ঞেস করা হলো, “হে আল্লাহর রসুল, কোন রোজার ফজিলত বেশি? উত্তরে তিনি বললেন, রমজানের সম্মানে শাবান মাসে আদায়কৃত রোজার ফজিলত বেশি। আবার জানতে চাওয়া হলো, কোন দানের ফজিলত বেশি? উত্তরে তিনি বললেন, রমজান মাসে কৃত দানের ফজিলত বেশি” (বায়হাকি)।

হাদিসে এসেছে, রসুল (সা.) শাবান মাসে যত রোজা রেখেছেন তা অন্য মাসে এত রোজা রাখেননি। শাবান মাসটি রজব ও রমজানের মধ্যবর্তী একটি মাস। রমজান মাসকে সামনে রেখে মানুষ এই মাসের প্রতি উদাসীন থাকে। অথচ এই মাসের নেক আমল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ও মর্যাদাপূর্ণ। রসুল (সা.) শাবান মাস ছাড়া অন্য কোনো মাসে এত অধিক হারে নফল রোজা আদায় করতেন না (বুখারি)। রমজানের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করা জরুরি। সংযত কথাবার্তা, পরোপকারী হওয়া, ব্যবহারিক কাজ-কর্মে পরিবর্তন আনা জরুরি। পরনিন্দা, পরচর্চা ও অন্য আজেবাজে কাজ থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে রাখতে হবে। বেশি বেশি দান সাদাকা করা রমজান মাসে উত্তম। নিজের খারাপ ও বাজে বদ-অভ্যাসগুলো চিহ্নিত করে তা বর্জন করা উচিত। রমজান মাস পাওয়া একজন মুসলমানের জন্য আল্লাহর বিশেষ নেয়ামত। যেহেতু রমজান মাস কল্যাণ ও নিজেকে সংশোধন করার মাস, সেজন্য এই মাসে যত বদ-অভ্যাস পরিবর্তন করা যায়, ততই মঙ্গল। রমজানে আল্লাহ রাব্বুল আল-আমিন জান্নাতের দরজাগুলো খুলে দেন আর জাহান্নামের দরজাগুলো বন্ধ রাখেন। রমজান মাসে একজন মুসলমান দিনে রোজা রাখবে আর বেশি বেশি করে নফল ইবাদত করবে। আল্লাহর দরবারে তাঁর সন্তুষ্টি অর্জনের জন্য বিনয়াবনত হয়ে নিজের জন্য, পরিবারের জন্য ও মুসলিম জাতির জন্য কায়মনোবাক্যে প্রার্থনা করবে। আল্লাহ যেন তার নেক আমলগুলো কবুল করে নেন এবং তাকে জাহান্নামের আগুন থেকে রক্ষা করেন। রমজান আসার আগেই আমাদের উচিত, আল্লাহর দরবারে তওবা করে ক্ষমা চাওয়া। আল্লাহ বলেন, ‘আর হে মুমিনগণ, তোমরা সবাই আল্লাহর কাছে তওবা কর, যাতে করে সফলকাম হতে পার’ (সুরা আন নূর-৩১)। সুতরাং রমজানকে সামনে রেখে আমরা এই শাবান মাসে বেশি বেশি নফল ইবাদত ও নফল রোজা রাখতে সচেষ্ট হই এবং রমজানে সুস্থ থেকে ফরজ রোখা রাখার তৌফিক অর্জনের জন্য আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি। আল্লাহ আমাদের সবাইকে রমজানের রোজা রাখার তৌফিক দান করুন।

শেষ দুই টি-টোয়েন্টির টিকিট কোথায়

স্পোর্টস ডেস্ক :
ইংল্যান্ডের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে দারুণ এক জয়ের দেখা পেয়েছে বাংলাদেশ। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে প্রথমে ব্যাট করে ইংল্যান্ড সংগ্রহ করে ১৫৬ রান। যা টাইগাররা ৪ উইকেট হারিয়ে দুই ওভার হাতে রেখেই পেরিয়ে যায়। তিন ম্যাচের সিরিজে এবার স্বাগতিকদের সামনে সুযোগ সিরিজ জেতার।

এই লক্ষ্যে ঢাকায় শেষ দুই টি-টোয়েন্টিতে মাঠে নামবে সাকিব আল হাসানের দল। ১২ ও ১৪ মার্চ বিকেল তিনটায় মিরপুরের শেরে বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে ম্যাচগুলো। বিসিবি থেকে এই দুই ম্যাচের টিকিটের দাম জানানো হয়েছে।

গ্র্যান্ড স্ট্যান্ডের টিকিটের জন্য খরচ করতে হবে ১৫০০ টাকা, ভিআইপি স্ট্যান্ড বসে খেলা দেখতে লাগবে এক হাজার টাকা। এছাড়া ক্লাব হাউজে ৫০০, নর্থ ও সাউথ স্ট্যান্ডের টিকিটের দাম ৩০০ টাকা। সর্বনিম্ন ২০০ টাকায় ইস্টার্ণ স্ট্যান্ডে বসে খেলা দেখা যাবে।

শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে ম্যাচের আগের দিন ও ম্যাচের দিন টিকিট সংগ্রহ করা যাবে। সকাল সাড়ে নয়টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টা অবধি খোলা থাকবে কাউন্টার।

বরিশাল বিএম কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়শন এর ৫১ তম রিইউনিয়ন অনুষ্ঠিত হয়েছে

শামীম আহমেদ :

বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন (বিএম) কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়শন এর ৫১ তম রিইউনিয়ন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ শুক্রবার (১০) মার্চ সকাল সাড়ে ১০ টায় বরিশাল সরকারি ব্রজমোহন বিএম কলেজ মাঠে ৫১ টি বেলুন উড়িয়ে রিইউনিয়নের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও সরকারি ব্রজমোহন কলেজের রাষ্ট্রবিজ্ঞান অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়শেন এর প্রধান অ্যালামনাই এ্যাড. জাহাঙ্গীর কবির নানক। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন সংসদ সদস্য
সুলতানা নাদিরা।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, বিএম কলেজ অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর ড. এ এস কাইয়ূম উদ্দীন আহমেদ, শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মো. আলআমিন সারোয়ার।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগীয় প্রধাান প্রফেসর খান মোঃ গাউস মোসাদ্দিক,রাষ্ট্রবিজ্ঞান অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়শনের যুগ্ম আহবায়ক নজরুল হক নিলু,এ্যাড, মজিবুর রহমান নান্টু।

উদ্বোধন শেষে এক বণাঢ্য র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিতে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। পরে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

 

রাম চরণ কী তবে হলিউডের সিনেমায়?

বিনোদন ডেস্ক :
‘আরআরআর’ সিনেমার ‘নাটু নাটু’ গান দিয়েই অস্কারে প্রবেশ করতে চলেছেন দক্ষিণ ভারতের অভিনেতা রাম চরণ। ইতোমধ্যেই বেস্ট অরিজিনাল সং হিসেবে গোল্ডেন গ্লোবস জিতেছে এই গানটি। পশ্চিমাদের মুখেও ঝরেছে ‘আরআরআর’ সিনেমার প্রশংসা। আর এই সিনেমাই বিশ্বে রামচরণকে বিশেষ একটা পরিচিতি এনে দিয়েছে।

এবার হলিউডে কাজ করতে চলেছেন রাম চরণ- এমন গুঞ্জনও উঠছে। আর সে বিষয়েই কথা বলেছেন এই অভিনেতা।

তিনি বলেছেন, ‘সিনেমাকে সম্মান করা হয় এবং দর্শকরা অভিনয় দেখতে ভালোবাসেন এমন যেকোনো দেশেই আমি কাজ করতে রাজি। যেখানেই সিনেমা, সেখানেই আমি। হ্যাঁ, অবশ্যই আলোচনা চলছে। কিন্তু সেই কথাবার্তা যদি পাকা হয় এবং আমি বিদেশের কোনো ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হই, তাহলে সে খবর তো পাবেনই… আর দুয়েক মাসের মধ্যেই তা জানা যাবে।’

হলিউডের কাদের সাথে অভিনয় করতে চা সেকথাও জানিয়েছেন রামচরণ। তিনি বলেছেন, ‘শীর্ষ সারির তারকাদের মধ্যে আমি জুলিয়া রবার্টসের সঙ্গে কাজ করতে চাই। সেই ছবিতে যদি অতিথি চরিত্রেও থাকি, তবুও। কে না চায় টম ক্রুজ, ব্র্যাড পিট, জুলিয়া রবার্টসের মতো তারকাদের সঙ্গে কাজ না করতে?’

অস্কারের গুরুত্বও বোঝালেন রামচরণ। তিনি বলেছেন, ‘বাবা আমাকে বলেন যে আমি প্রায় দেড়শ’র উপরে ছবি করেছি এবং একবার অস্কারে ডাক পেয়েছি, তার মানে এটা একটা বিরাট অর্জন। আর এখন যেহেতু আমরা মনোনয়ন পেয়েছি, আমরা ফলাফলের অপেক্ষায় রয়েছি। এটা আমাদের জন্য অনেক বড় বিষয়।’

সৌদি-ইরানের ভাঙা সম্পর্ক জোড়া লাগার ইঙ্গিত

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :

মধ্যপ্রাচ্যের প্রতিবেশী দেশ ইরান ও সৌদি আরব। ধর্ম, ভূ-রাজনৈতিক ও যুক্তরাষ্ট্র ইস্যু নিয়ে দেশ দুটির মধ্যে উত্তেজনা কম ছিল না। এমনকি, ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে তেহরানের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক ছেদ করে রিয়াদ। তবে, আগের সম্পর্কে ফিরে যেতে চাইছে প্রতিবেশী দেশ দুটি। ইরানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমের বরাতে আজ শুক্রবার (১০ মার্চ) এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল-জাজিরা।

প্রতিবেদনে কাতার ভিত্তিক সংবাদ মাধ্যমটি জানায়, নিজেদের সম্পর্ক পুনস্থাপনে ইরান ও সৌদি আরব একমতে পৌঁছেছে। আগামী দুমাসের মধ্যেই ফের দূতাবাস স্থাপন করবে তারা। চীনের বেইজিংয়ে একটি বৈঠকের পরেই এই খবর সামনে এলো।

শুক্রবার ইরানের সংবাদ সংস্থা ইরনা জানিয়েছে, বেইজিংয়ের আলোচনার ফলস্বরূপ, তেহরান ও রিয়াদ দুমাসের মধ্যে কূটনৈতিক সম্পর্ক পুনরায় চালু এবং দূতাবাস পুনরায় চালু করতে সম্মত হয়েছে।

ইরানের জাতীয় নিরাপত্তা সংশ্লিষ্ট গণমাধ্যম নর নিউজ বেইজিং বৈঠকের একটি ছবি ও ভিডিও প্রকাশ করেছে। এতে দেখা যায়, ইরানের কাউন্সিল সেক্রেটারি আলী শামখানি, সৌদি কর্মকর্তা ও চীনা কূটনৈতিক ওয়াং ই বৈঠকে উপস্থিত রয়েছেন।

ইরানের রাষ্ট্রীয় সম্প্রচার মাধ্যম বলছে, বৈঠকের সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন, অর্থাৎ দূতাবাস ফের স্থাপনের পর দুদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা আলোচনা করবেন।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছে সৌদির সংবাদ সংস্থা সৌদি প্রেস এজেন্সি। তেহরান-রিয়াদের একটি যৌথ বিবৃতিও প্রকাশ করেছে সংবাদ সংস্থাটি। এতে বলা হয়, দুদেশ তাদের সার্বভৌমত্বকে সম্মান দেখাবে এবং অভ্যন্তরীণ বিষয় নিয়ে নাক গলাবে না। এমনকি, তেহরান-রিয়াদের মধ্যে ২০০১ সালে হওয়া নিরাপত্তা চুক্তি মেনে চলবে।

পুষ্প ২ : আল্লু অর্জুন নিচ্ছেন ১২৫ কোটি

বিনোদন ডেস্ক :

ব্লকবাস্টার হওয়া ‘পুষ্প : দ্য রাইজ’ সিনেমার দ্বিতীয় কিস্তিতে দর্শক পুষ্পর সঙ্গে পুলিশ অফিসার চরিত্রে অভিনয় করা মালয়ালাম অভিনেতা ফাহাদ ফাসিলের লড়াই দেখার অপেক্ষায়। দ্বিতীয় কিস্তি, অর্থাৎ ‘পুষ্প : দ্য রুল’ সিনেমার শুটও চলছে পুরোদমে।

এর মাঝে নতুন খবর এসেছে, সিনেমাটিতে বিশেষ চরিত্রে যুক্ত হয়েছেন সাই পল্লবী।

এখন খবর, শুট শেষ করার আগেই সিনেমাটির সকল ভাষার প্রেক্ষাগৃহ স্বত্ব ১০০০ কোটি রুপি দাবি করছে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান। আর সিনেমাটির মূল আকর্ষণ আল্লু অর্জুন এই সিনেমার জন্য পারিশ্রমিক দাবি করেছেন ১৫০ কোটি রুপি, শেষ পর্যন্ত তাঁকে রাজি করানো গেছে ১২৫ কোটি রুপিতে। হায়দ্রাবাদ ও তেলেঙ্গানা ভিত্তিক এক দৈনিকের বরাতে এমন খবর প্রকাশ করেছে নিউজ১৮।

‘পুষ্প : দ্য রুল’-এর বাজেট ৪০০ কোটি রুপি। প্রথম কিস্তির বাজেট ছিল ১৯৪ কোটি রুপি।

সুকুমার পরিচালিত ‘পুষ্প : দ্য রাইজ’ ২০২১ সালের ১৭ ডিসেম্বর তামিল, তেলেগু, মালয়ালাম, হিন্দি ও কন্নড় ভাষায় মুক্তি পায়। অন্ধ্র প্রদেশের চিত্তোর জেলার একটি প্রত্যন্ত অঞ্চলের চোরাকারবারি নিয়ে সিনেমার গল্প; যেখানে দেখানো হয় লাল চন্দন কাঠের চোরাকারবার। বক্স অফিসে ঝড় তোলে সিনেমাটি। আল্লুর বিপরীতে সাড়া জাগান রশ্মিকা মন্দানা।

রমজানে নিত্যপণ্যের দাম বাড়বে না

ডেস্ক রিপোর্ট :

রমজানের আগে সবাই বাজারে একসঙ্গে হুমড়ি খেয়ে না পড়লে নতুন করে নিত্যপণ্যের  দাম বাড়বে না বলে জানিয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। আজ শুক্রবার (১০ মার্চ) বিকেলে চাঁদপুর পুলিশ লাইনস মিলনায়তনে রোটারি ক্লাব অব উত্তরা আয়োজিত ফ্যামেলি ডে অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্য শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘রমজানে বাজার মনিটরিংয়ের জন্য র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব), পুলিশসহ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাঠে থাকবে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘ডলারের কারণে দ্রব্যমূল্য বেড়েছে—এটা একটা কারণ বটে। যেসব পণ্য আমাদের আমদানি করতে হয়, সেটা কিন্তু সারা পৃথিবীতে বেড়েছে। এই কথা বিবেচনা করে প্রধানমন্ত্রী এক কোটি পরিবারের পাঁচ কোটি মানুষকে সাশ্রয়ী মূল্যে তেল, চিনি, ডাল এবং রমজান মাস উপলক্ষে খেজুর ও ছোলা দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন।

এর আগে বাণিজ্যমন্ত্রী বৃক্ষরোপণ, ১০টি সেলাই মেশিন ও টিউবওয়েল বিতরণ করেন।  এ সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মিলন মাহমুদ, পুনাক সভানেত্রী আফসানা শর্মী, রোটারি ক্লাব অব উত্তরার সভাপতি সামছুল করিম রুকু প্রমুখ।

সাফল্যের রহস্য জানালেন শান্ত

স্পোর্টস ডেস্ক :

একটা সময় নিয়মিত সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে ব্যর্থ হতেন নাজমুল হোসেন শান্ত। প্রতিনিয়ত শুনতেন সমালোচনা। সেই শান্তকেই এখন দেখা যাচ্ছে নতুন রূপে। সাম্প্রতিক সময়ে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে নিয়মিত হাসছে শান্তর ব্যাট, তাতে ভর করে হাসছে বাংলাদেশও। তবে এই ছন্দের পেছনেও আছে রহস্য। ইংল্যান্ডকে হারানোর পর সেই রহস্যের কথাই জানালেন বাঁহাতি এ ওপেনার।

ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৬ উইকেটের বিশাল জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এই জয়ের পেছনে মূল নায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত। ব্যাট হাতে দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৩০ বলে ৫১ রানের চমৎকার ইনিংস উপহার দিয়েছেন তরুণ এই ওপেনার। হয়েছেন ম্যাচ সেরাও।

শুধু এই ম্যাচ কেন, গেল ম্যাচেও হেসেছিল তাঁর ব্যাট। ইংল্যান্ডের বিপক্ষেই ৬ মার্চ ওয়ানডেতে শান্ত খেলেছিলেন ৫৩ রানের ইনিংস। সেই ম্যাচেও জিতেছিল বাংলাদেশ। সবমিলিয়ে শেষ সাত ম্যাচে ব্যাট হাতে একবার শুধু শূন্যতে ফিরেছেন তিনি। ইনিংসগুলো যথাক্রমে ৩৮, ৪০, ৬৪, ৫৮, ০, ৫৩, ৫১।

এমন ধারাবাহিক পারফরম্যান্সের পেছনে বিপিএলের আত্মবিশ্বাসকে দায়ী করছেন শান্ত। তিনি বলেছেন, ‘আসলে আমরা যেভাবে বিপিএলে ব্যাটিং করেছি। ওইটাই আমরা আজকে প্রয়োগ করার চেষ্টা করেছি। কোনো ব্যতিক্রমী কোনো কিছু করার চিন্তা আমাদের ছিল না। আমি চেষ্টা করেছি ভালো একটা শুরুর। যেটা পাওয়ার পর চেষ্টা করেছি, মোমেন্টাম ধরে রাখার। বাড়তি কোনো কিছুর করার কোনো পরিকল্পনা ছিল না। শুধু পরিস্থিতি অনুযায়ী ব্যাটিং করার চেষ্টা করেছি।’

বাংলাদেশের জার্সিতে আজ টি-টোয়েন্টি অভিষেক হয় তৌহিদের। প্রথম ম্যাচে বেশ নির্ভার মনে হয়েছে তাঁকে। তৌহিদ হৃদয়ের প্রসঙ্গে শান্ত বলেন, ‘প্রথম ম্যাচ হিসেবে যে ধরনের ব্যাটিং অ্যাপ্রোচ ছিল হৃদয়ের, সেটা দেখেই আমি আত্মবিশ্বাস পাই। এই রকম বড় দলের বিপক্ষে হৃদয়কে নার্ভাস মনে হয়নি।’

শান্ত মনে করেন, ইংল্যান্ডের মতো বড় দলের সঙ্গে জিতলে আত্মবিশ্বাস বাড়ে। তাঁর ভাষায়, ‘বিশ্বের সেরা দল তারা (ইংল্যান্ড)। তাদের সঙ্গে খেলা আমাদের জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং। আর বড় দলের বিপক্ষে জয় সবাইকে আত্মবিশ্বাসী করে তুলে। এভাবে জয় পেলে টি-টোয়েন্টিতেও আমরা ব্যালেন্স একটা দল হয়ে উঠবো।’